গাউসুল আজম হযরত আব্দুল কাদির জিলানী (রহঃ) এর শানঃ- | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস



হযরত খাজা নিজামুদ্দিন আউলিয়া (রহঃ) বলেন -
একবার গাউসুল আজম হযরত আব্দুল কাদির জিলানী (রহঃ) এর একজন আশেক ওনার খানকায় গেলেন, দেখলেন এক ব্যক্তি হাত-পা ভাঙা খুব করুণ অবস্থায় ছটফট করছে। গাউসে পাক (রহঃ) এর নিকট আরজ করলেন, ইয়া গাউসে আজম (রহঃ) আপনার দরবারে এসেছে, হাত-পা ভাঙা, বড়ই করুণ অবস্থা আছে, ওনার কি হয়েছে? দয়া করে ওনাকে সাহায্য করুন। 
গাউসে আজম (রহঃ) ফরমান, সে আবদাল (অলি) ছিল। 
তিন আবদাল আমার খানকার উপর দিয়ে উড়ে যাচ্ছিল। 
দুইজন আবদাল দেখেছেন এখানে গাউসুল আজম (রহঃ) এর খানকা ! (আদবের সহিত) একজন ডানদিকে সরে গিয়েছেন, আরেকজন বামদিকে সরে গিয়েছেন, তৃতীয়জন বলল আমি নিজেই একজন আবদাল (অলি) আমি কেন গাউসের আদব করব? ওই আবদাল আসমান থেকে আমার খানকার উপর হাত-পা ভাঙা অবস্থায় লুটিয়ে পড়ল। (সুবাহানাল্লাহ এই গাউসে পাকের শান)



আউলিয়ায়ে কেরামের গোস্তাখকারীগণ শুনে রাখো!
আসমানে থাকা আবদাল গাউসে পাকের শানে গোস্তাখী করায় যদি এমন করুণ হালাত হয়, জমিনে থাকা কিরা (ওহাবী-সালাফী) তোমরা যারা গাউসে পাকে শানে কুটুক্তি করো তোমাদের কি হবে?