গোলাবী ওহাবীদের মুখোশ উন্মোচন : | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

ভারতীয় উপমহাদেশে ওহাবীবাদের বীজ বপনকারী সৈয়দ আহমদ বেরেলভী- ইসমাঈল দেহলভী গংদের চেলা চামুন্ডারা অভিযোগ করেছে যে সুন্নীরা শাহ ওলিউল্লাহ মুহাদ্দীস দেহলভী রহ. এর ভুল ধরেছে।

অথচ কানযুল ঈমানের অনুবাদক (আল্লামা আবদুল মান্নান) অন্যান্য তরজুমা এবং তাফসীরের সাথে কানযুল ঈমানের একটি তুলনামূলক পার্থক্য তুলে ধরার জন্য কানযুল ঈমানের ভূমিকাতে কয়েকটি আয়াত তুলে ধরেছেন এবং ঐসব আয়াতের তরজুমা করার ক্ষেত্রে কানযুল ঈমানের তুলনামূলক শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করার চেষ্টা করেছেন। আর লেজকাটা ওহাবীরা তিল কে তাল বানিয়ে ফেলেছে আর অপপ্রচার চালাচ্ছে যে সুন্নীরা শাহ সাহেবের ভুল ধরেছে।  

যেমন সূরা নিসার ১৪২ নং এই আয়াতের তরজুমা করার ক্ষেত্র শাহ ওলিউল্লাহ (রহ), শাহ আবদুল কাদের, শাহ রফিউদ্দীন, আশেক ইলাহী বুলন্দশহরী, মাহমুদুল হাসান দেওবন্দী, আশরাফ আলী থানভী গংরা লিখেছেন যে, মুনাফিকরা আল্লাহর সাথে ছলনা বা প্রতারণা করেছে আল্লাহ ও তাদের সাথে ছলনা বা প্রতারণা করেছেন (নাউযুবিল্লাহ)

প্রকৃতপক্ষে সত্য হল, অনুবাদের ক্ষেত্রে তারা সবাই ইচ্ছা বা অনিচ্ছায় হোক ভুল করেছে, এটা সবাই স্বীকার করে নিতে বাধ্য। কারন, আল্লাহ আযযা ওয়াজাল্লাহ সকল প্রকার দোষ ত্রুটি এবং এরূপ বিশেষণ থেকে পবিত্র।

যেমন আল্লাহ্ পাক কুরআনের কিছু কিছু স্থানে কাফের এবং মুশরিকদের গোপন পরিকল্পনা, দূরভিসন্ধি, কূট মনঃবাঞ্ছনার ক্ষেত্রে যে শব্দ ব্যবহার করেছেন, নিজের সুপরিকল্পনার ক্ষেত্রেও একই শব্দ ব্যবহার করেছেন। কিন্তু অনুবাদের সময় সেসব শব্দের পার্থক্য পাঠকের সামনে তুলে ধরা দক্ষ এবং নবীপ্রেমিক অনুবাদকের দায়িত্ব। আল্লাহ্ পাক বলেন, ওয়া ইয়ামকুরুনা ওয়া ইয়ামকুরুল্লাহ, ওয়াল্লাহু খাইরুল মাকেরীন। "মকর" শব্দটি খারাপ ভালো উভয় অর্থেই ব্যবহৃত হতে পারে। পরিকল্পনা এবং দুরভিসন্ধি/ধোঁকা এ দুটো ক্ষেত্রেই ব্যবহৃত হতে পারে। কিন্তু আল্লাহ্ পাকের ক্ষেত্রে এমন কোন শব্দ ব্যবহার করা যাবে না, যাতে তাঁর শান এবং অতুলনীয় মর্যাদায় এবং পবিত্রতায় প্রচ্ছন্ন কালিমা লেপন হয়। কিন্তু দুঃখজনক ভাবে বাংলায় প্রায় সবগুলো অনুবাদেই এই আয়াতের অনুবাদ করা হয়েছে। অসংখ্য আয়ত থেকে এখানে মাত্র দুটো আয়াতের পাশাপাশি অর্থ তুলে ধরছিঃ

* তারাও প্রতারণা করতো এবং আল্লাহ্ও প্রতারণা করতেন, এবং আল্লাহর প্রতারণা সর্বোত্তম! [সূরা ৯, আনফাল- ৩০ শাহ আব্দুল কাদের]

* তারা নিজেদের তদবির করতো, আল্লাহ মিয়া আপন তদবির করতেন। আর সর্বাপেক্ষা মজবুত তদবির ওয়ালা হচ্ছেন আল্লাহ্। - আশারাফ আলী থানবি

* এবং তারা নিজদের মতো ষড়যন্ত্র করছিলো, আর আল্লাহ্ নিজের গোপন কৌশল করছিলেন এবং আল্লাহর গোপন কৌশল সর্বাপেক্ষা উত্তম। (কানযুল ঈমান)

সূরা দ্বোহার ৭ নং আয়াতে লক্ষ্য করুন কে কিভাবে অনুবাদ করেছেন।

তিনি আপনাকে পেয়েছেন পথহারা, অতঃপর পথপ্রদর্শন করেছেন। - [সূরা দ্বোহা-৭, বাংলাদেশে প্রাপ্য প্রায় সব অনুবাদক এভাবে অনুবাদ করেছে)

আ'লা হযরত আলাইহির রাহমা এর অনুবাদ করার ক্ষেত্রে প্রিয় নবীর শান মুবারকের প্রতি সজাগ ছিলেন। যেমন তিনি লিখেছেন-

এবং আপনাকে স্বীয় প্রেমে আত্মহারা পেয়েছেন, তখন নিজের দিকে পথ দেখিয়েছেন। [সূরা দ্বোহা-৭, কানযুল ঈমান]

সুতরাং লেজকাটা ওহাবীদের বলতে চাই, তোমরা ওহাবী এর কারন হল আল্লাহ এবং তাঁর প্রিয় হাবীবের শানে তোমাদের সামান্যটুকু আদব লেহাজ নেই, তোমরা বেয়াদব বেহায়া।