ফিরিঙ্গিবেশে ধ্বংসলীলা | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস



ফিরিঙ্গিবেশে ধ্বংসলীলা
✍ [মাসুম বিল্লাহ সানি]
➖➖➖➖➖➖➖➖
জীবন কণিকা - মোহের লালসায়,
অঞ্চল খসাল - অর্থের পিপাসায়!
জাহান্নামের কৃষ্ণ বিবর আর কত বাকি,
ফাসিয়েছে আজ তারে স্বীয় নকশার কাঠি!

ভন্ডামী করি নি, তবুও মোরা ভন্ড,
মধুর কথা বলেও, তাতে নেই কোন ছন্দ।

ইবাদতে গিয়ে যখন হলাম পূজারী,
দীশাহীন মস্তকবিহীন হল দিশারী।

বিদআত না করেও-
যখন কেহ বিদআতী,
বিদআত ছাড়ে না যারে, 
তাদের নেই সম্পৃক্তি।

কুফর করেনি যারা, 
তবুও হয়েছে কাফির!
কুফর থেকে পালায়নকারী, 
ওরা যেন তাতেই নতশির!

মুখে ঈমানের বুলি, 
স্বাদ মাকাল ফলে,
পরিশেষে কূল হারালে,
অদৃষ্ট যাক্কুম গিলে।

লোকে দুনয়নে, করে যাকে ভক্তি,
পুণ্যাত্মাদের দরগাহে গিয়ে পায় যেন শক্তি।
অন্ধ-নির্বোধের নেই কোন আসক্তি,
শিরিকের গন্ধে তাদের সদা বিরক্তি!

কেউ দেখে মাযার চোখে,
কেউ তাতে মূর্তি, 
মাযার-মূর্তির ফরক না বোঝে,
নারে উদর পূর্তি!

ফিরিঙ্গিবেশে স্বদেশী সেজে,
রঙ্গমঞ্চের খেলা।
দ্বীনের ধ্বংসলীলায় মেতেছে,
যেন আজ তাদের বেলা।
খেলা ফুরাবে, বেলা হারাবে,
বেশ করেছ হেলা। 
অপেক্ষা করো সিঙ্গা বাজবে,
রসাতলে স্বাদের ভেলা।

[বিষয়বস্তু : ওহাবী,সালাফী ও বাতিল ফির্কাদের হাক্বিকত এই কবিতার মূল প্রতিপাদ্য বিষয়]