দরসে হাদিসঃ মানুষের প্রতিটি অঙ্গের যিনা | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস


🍭✏পোস্ট নং : ১৭
🍭✏প্রোজেক্ট নাম : — পবিত্র হাদীস শরীফ ও তার হাশিয়া ৷ 
🖋সাবিহা জান্নাত নুরী
عن ابی هریرة قال قال رسول الله ﷺ ان الله کتب علی ابن ادم حظه من الزنا ادرک ذٰلک لا محلة فزنا العین النظرو زنا اللسان المنطق والنفس تمنی وتشتهی والفرج یصدق ذلک ویکذبه۔(متفق علیه)
وفی رویة لمسلم قال کتب علی ابن ادم نصیبه من الزنا مدرک ذٰلک لا محالة العینان زناهما النظرو الا ذنان زناهما الاستماع واللسان زناه الکلام والید زناها البطش والرجل زناها الخطٰی والقلب یهوی ویتمنی ویصدق ذٰلک الفرج ویکذبه۔
অনুবাদ : হযরত আবু হোরাইরা (رضی الله عنه) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, হুজুর (ﷺ) এরশাদ করছেন, " আল্লাহ তা'আলা প্রতিটি মানুষের জন্য তার যিনার অংশ লিপিবদ্ধ করেছেন , যা সে অবশ্যই পাবে ৷সুতরাং চক্ষুর যিনা হচ্ছে কুদৃষ্টি , আর জিহ্বার যিনা হচ্ছে আলোচনা করা ৷আর মনে প্রবৃত্তি ইচ্ছা ও কামনা করে আর লজ্জাস্থান ওই কামনাকে সত্যায়িত কিংবা মিথ্যা প্রতিপন্ন করে ৷—(বোখারী,মুসলিম) 
আর ইমাম মুসলিমের এক বর্ণনায় আছে যে, আদম —সন্তানদের ঊপর যিনার অংশ লিপিবদ্ধ করা হয়েছে,যা সে অবশ্যই পাবে ৷ চক্ষুর যিনা হচ্ছে দেখা, কানের যিনা হচ্ছে শ্রবণ করা এবং জিহ্বার যিনা হচ্ছে, আলোচনা করা, হাতের যিনা স্পর্শ করা, পায়ের যিনা পা বাড়ানো এবং মনের প্রবৃত্তি ইচ্ছা ও কামনা করে, আর লজ্জাস্থান সেটাকে সত্য কিংবা মিথ্যা প্রতিপন্ন করে ৷

✏🍭کتب علی ابن اٰدم ۔
এর ব্যাখ্যা : এখানে 'প্রতিটি মানূষ ' দ্বারা সাধারণ মানুষ বুঝানো উদ্দেশ্য ৷যা থেকে, বাল্যকালে মৃত্যুবরণকারী সন্তানগণ ,বিশেষ করে সম্মানিত নবীগণ রাসুলগণ,আউলিয়ায়ে কেরামগণ স্বতন্ত্র৷যারা সম্মানিত নবীগণকে এর অন্তর্ভুক্ত বলে বিশ্বাস করে তারা বে — দ্বীন ৷ অর্থ এ যে,সাধারণত মানুষ  যিনা কিংবা যিনার আনুষান্ঙ্গিক বিষয়াদিতে জড়িয়ে পড়ে ৷আল্লাহ তা'আলার বড় অনুগ্রহ এ যে , অন্ঙ্গ — প্রত্যন্ঙ্গের অনিচ্ছাকৃত নড়াচড়া ও নিছক কুধারণার জন্য পাকড়াও করেননা ৷ 
হযরত শায়খ আব্দুল হক মুহাদ্দিস — ই দেহলভী (র) তাঁর আশি'আতুল লুম'আত গ্রন্থে লিখেছেন,যিনার অংশ মানে যিনার মাধ্যমসমূহ ৷এভাবে যে, মানুষের মধ্যে যৌন প্রবৃত্তি এবং নারীর প্রতি আসক্তি স্বভাবগতভাবেই সৃষ্টি করা হয়েছে ; কিন্তু আল্লাহ যাকে চান তাকে তা থেকে রক্ষা করেন ৷
স্মার্তব্য যে , হযরত ইউছুফ (علیه السلام) র পবিত্র হ্নদয়ে ওই বিশেষ সময়ে যুলাইখার প্রতি বিন্দুমাত্রও আসক্তি জন্মেনি ৷ 

🍭✏فزنا العین النظر۔
এর ব্যাখ্যা : পরনারীর প্রতি আসক্তির কারণে ৷
স্মার্তব্য যে, হঠাৎ দৃষ্টি পতিত হওয়া ক্ষমাযোগ্য ৷ ইচ্ছাকৃত দেখার জন্য পাকড়াও করা হবে ৷ এখানে দ্বিতীয় প্রকার দৃষ্টি বুঝানো উদ্দেশ্য ৷ 

✏🍭وزنا اللسان المنطق۔
এর ব্যাখ্যা : পরনারীদের সৌন্দর্যের প্রশংসা করা জিহ্বা বা মুখের যিনা , তা সাগ্রহে তৃপ্তিসহকারে উপভোগের জন্য শ্রবণ করা কানের যিনা ৷কোন কোন মহিলা স্বীয় স্বামীর নিকট অন্য মহিলার রুপ ও গুণ বর্ণনা করে থাকে ৷ এটা গুরুত্বর অপরাধ ৷ 

✏🍭وا لاذنان زنا هما الاستماع۔
এর ব্যাখ্যা : কান লাগিয়ে মনযোগ সহকারে ৷ এ জন্য এখানে  استماع— باب افتعال  থেকে উল্লেখ করা হয়েছে ৷ 

🍭✏والرجل زناهما الخطٰی ۔
এর ব্যাখ্যা : সারকথা এ যে, একটি যিনা অনেকগুলো ছোট ছোট যিনার সমষ্টি ৷প্রত্যেক অন্ঙ্গের যিনা আলাদা৷ যিনাকারী যিনা করার সময়  চোখ ,কান, জিহ্বা, হাত, পা সমস্ত অন্ঙ্গের যিনা করে থাকে ৷ এ জন্যই 'কন্কর নিক্ষেপ' করা হয় ; শুধু খাসি করা হয় না৷ 

✏ویصدق ذٰلک الفرج ویکذبه۔
এর ব্যাখ্যা : সুতরাং মানুষের উচিত , যিনার আনুষাঙ্গিক বিষয়াদি থেকেও নিজেকে রক্ষা করা ৷সিনেমা রেডিও টেলিভিশন ইত্যাদিতে ফিল্মী গান ও চলচ্ছিত্র প্রচার প্রসার ও প্রদর্শনের কুফল লক্ষ্য করা যাচ্ছে ৷