প্রশ্নোত্তর | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

প্রশ্ন
হুজুর আমার একটি প্রশ্ন,আমার বান্ধবীর কাছ থেকে শুনেছি স্বামীকে নামাযের জন্য জাগ্রত করার উদ্দেশ্যে পানি ছিটাও দেয়া যাবে ৷ এটা কতটুকু সঠিক? জানালে উপকৃত হবো ৷

উত্তর:- Salma Ahmed Essa

স্বামী যদি বদমেজাজী না হয় , পানি ছিটালে স্ত্রীর উপর রাগান্বিত না হয় ৷ বরং খুশি হয়ে এটাকে গনিমত মনে করে ৷ তাহলে স্বামি-স্ত্রী একে অপরকে নিদ্রা থেকে জাগানোর উদ্দেশ্যে পানি ছিটালেও আল্লাহ তায়ালা তাদের উপর রহমত বর্ষণ করেন ৷ কেননা হাদীস শরীফে আবু হুরায়রা রাঃ থেকে বর্নিত আছে, রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেছেন, যে ব্যক্তি রাতে ঘুম থেকে জেগে তাহাজ্জুদ নামায পড়ে এবং সে তার স্ত্রীকেও ঘুম থেকে জাগ্রত করে নামায পড়ায় এমনকি না উঠলে, তার মুখে সামান্য পানি ছিটিয়ে দেয়, তাহলে তার উপর আল্লাহ তায়ালা রহমত বর্ষণ করেন । অনুরুপ কোন স্ত্রী যদি রাত্রিকালে জাগ্রত হয়ে তাহাজ্জুদ নামায পড়ে এবং তার স্বামীকে নামাযের জন্য জাগ্রত করে, এমনকি না জাগলে স্ত্রী তার চেহারায় হালকা পানি ছিটিয়ে দেয়, তাহলে তার প্রতিও আল্লাহ তায়ালা রহমত বর্ষন করেন ৷
-সুনানে আবি দাউদ, ১/২০৫, হাদীস নং ১৪৫০; সুনানে নাসাঈ,১/ ১৮৩, হাদীস নং ১৬০৯; মেশকাত শরীফ,১/১০৯