দুরুদ শরীফের ফজীলত | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

দুরুদ শরীফের ফজীলত

🖋(মাসুম বিল্লাহ সানি)


হাদিসঃ আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, 


عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ رضي الله عنه أَنَّ رَسُوْلَ اﷲِ صلي الله عليه وآله وسلم قَالَ : مَا مِنْ أَحَدٍ يُسَلِّمُ عَلَيَّ إِلَّا رَدَّ اﷲُ عَلَيَّ رُوْحِي، حَتَّي أَرُدَّ عَلَيْهِ السَّلَامَ


রাসূলুল্লাহ صلى الله عليه و آله وسلم বলেন, যদি তোমাদের মধ্যে কেউ আমার প্রতি সালাম জানায় আল্লাহ আমার রুহ আমাকে ফিরিয়ে দেন এবং আমি ঐ লোকের সালামের জবাব দেই ।


১.আবু দাউদ,হাদিস নম্বর ২০৩৬,সনদঃ সহিহ
২.আল-নাসা’ই তাঁর কিতাব আল-দু‘ফা ’ওয়া’ ই-মাতরুকিন, পৃষ্ঠা -১৬৮।
৩.আল দারিমির আল-তারিখ, পৃষ্ঠা ২৬০।
৪.ইমাম আহমাদ মুসনাদে হাদীসটিও বর্ণনা করেছেন, ২/৫২; ১০৮২৭।
৫.ইবনে ইসহাক আল রাহূইয়াহ তার মুসনাদে, ১/৪৫৩ (৫২৬ & ২০৪১);
৬.ইবনে ‘আসাকির’ মুক্ততাসার তারিক দিমশাক, ২/৪০;;
৭.আবু নু'আয়াম আল-ইস্পাহানী তাঁর আখবার আল-আসবাহান, 2/353;
৮.মুজাম আল-আসাতেঃ আল-তাবারানী, 3/262 (# 3092, 9329);
৯.আল-বায়হাকী আল-সুনান আল-কুবরা, 1/519: হাদীস 1666
১০.আল-বায়হাকী আল-সুনানে আল-কুবরা 3/249: হাদীস 5789
১১.আল-বায়হাকী: শুয়াবুল-ইমান: (# 4161);
১২.আল-হাওই লিল ফাতওয়া, খণ্ড ২, পৃষ্ঠা নং ২৭১-২৭২
১৩.ইমাম আন নওয়াবী (রহঃ) এই হাদীস সম্পর্কে বলেছেন: رَوَاهُ أبُو دَاوُدَ بإسناد صحيح অনুবাদ: এটি আবু দাউদ (রাঃ) "সহীহ সনদ" দ্বারা বর্ণনা করেছেন।
১৪.নাওয়াইল আল আওতার ৫/১৬৪।
১৫.রিয়াদ উস সালিহীন ১/২৫৫, হাদীস ১৪০২।
১৬.কিতাব আল মানাসিক (# 97)
১৭.আলবানীর সংস্করণ জিয়ারাতুল কুবুরের অধীনে (# 2041) এটিকে "হাসান" বলেছে।
১৮.আলবানীঃ সিলসিলাহ আহাদিস আল-সহিহাহ [২২৬৬]
১৯.ইবনে হাজার আল-আসকালানী, তাকরিব-আল তাহযিব, ১/২০০।
২০.হাফিজ আল-দারাকুতনী ইবন হিব্বান তাঁর আল-স্বিকা, ১৮৮ তে উদ্ধৃত করেছেন।
২১.আল-মিয্যিঃ তাহযিব আল-কামাল, 7/366।
২২.ইবনে আল-নাজ্জার, আখবার আল-মদীনা, পৃ .১৪৪।
২৩.তফসীরে ইবনে কাসীর, 6: 464;
-আল-মুন্ধিরি আল-তারগীব ওয়াল তারহীব, ২/৪৯৯
২৪.আল-‘আসকালানির তালখিস আল-হাবির, 2/267;
২৫.হায়ছামীঃ আল মাজমাউল জাওয়ায়েদ, 1/162;
২৬.আল-তাবরিজী, মিশকাতুল-মাসাবিহ ৯২৭ & ২/৪৯৯।
২৭.আল-মুত্তাকী আল হিন্দি,কাঞ্জুল উম্মাল, 6/464
২৮.মুরতদা আল-জাবেদী, ইতাফ আল-সাদাত আল-মুত্তাকিন, 4/419 এবং 10/365।

২৯.ইবনে রাহবীয়া: আল মুসনাদ, ১/৪৫৩, হাদিস: ৫২৬;

৩০.হায়ছামী: মাজমাউয যাওয়ায়েদ, ১০/১৬২]


হাদিসটির মান ও সনদ পর্যালোচনা :


▶এ হাদিসকে ইমাম আবূ দাউদ, আহমদ, তাবরানী এবং বায়হাকী বর্ণনা করেছেন।

▶ইমাম আসক্বালানীও বলেন,

ইহাকে ইমাম আবু দাউদ বর্ণনা করেছেন এবং ইহার বর্ণনাকারী নির্ভরযোগ্য।

▶ইমাম হায়ছমীও বলেন, ইহার সনদে আব্দুল্লাহ ইবনু ইয়াজিদ আল- ইস্কান্দারানী বর্ণনাকারীকে আমি চিনি না, যখন মাহদী ইবনু জাফর এবং অপরাপর সমস্ত বর্ণনাকারী নির্ভরযোগ্য।




হাদিসঃ রাসূলুল্লাহ صلى الله عليه و آله وسلم বলেন,

"যারা আমাকে ভালবাসে আমি তাদের দুরুদ নিজ কানে শোনতে পাই এবং আমি তাদেরকে চিনি।"


তথ্যসূত্রঃ


১.শাইখ `আব্দুল্লাহ সিরাজ আল-দ্বীন [নির্ভরযোগ্য সনদে] -সালাতুন নবী (পৃষ্ঠা 214)

২.তারিখ আল বাগদাদেঃ আল-খতিব আল-বাগদাদি (৩: ২৯২) [দুর্বল সনদে বর্ণিত]

৩.হায়াতুল আম্বিয়াঃ ইমাম বায়হাকী

৪.আল-বায়হাকী দুটি সনদে - শুআবুল-ইমানে (2: 218 # 1583),

৫.ইমাম বায়হাকী: আল-উকায়লি থেকে আল-দু'য়াফা (৪: ১৩৭)

৬.ইমাম মুত্তাকী আল-হিন্দীঃ কাঞ্জুল উম্মাল: হাদীস 2165, 2197, 2198, 41512

৭.ইমাম নাবহানী, শাওয়াহিদ আল-হক্ক (পৃষ্ঠা 283-285)।

৮.ইবনে হাজার আল-আসকালানি সনদটিকে "জায়েদ" (নির্ভরযোগ্য) হিসাবে অবিহিত করেছেন: ফাতহুল-বারী শরহে বুখারী (1989 সম্পাদনা 6: 379 = 1959 সংস্করণ 6: 488)

৯.ইমাম আসকালানির ছাত্র ইমাম সাখাভীঃ আল-কওলুল বদিতে ', পৃষ্ঠা ২২২

১০.মোল্লা আলী ক্বারী (রহ) তাঁর কিতাব الدرة ِالمضٔية في ِالزيارة المصطفوية তে লিখেন।

১১.আল-লা'আলিতেঃ ইমাম-সুয়ুতি, [সনদটিকে "জায়েদ]" হিসাবে বিবেচনা করে (১৯৯ তম সংস্করণ। 1: 259 = 1: 282-283)

১২.তাফসীরে ইবনে কাসীর (:: ৪66),

১৩.ইমাম আলুসিঃ আয়াত আল-বাইয়াইনাত, পৃষ্ঠা 80

১৪.জাওয়াইদ তরীখ বাগদাদে (৩:৬৯)

১৫.তানজিহ আল-শরীয়ায় ইবনে আরাক (১: ৩৩৫) ইবনে হাজারের রায়কে নিশ্চিত করেছেন এবং আল-লা'আলিতে আস-সুয়ূতীর 'অন্যান্য বর্ণনার মধ্যে আবু শায়খের সনদের সত্যতা দিয়েছেন।

১৬.রাফ আল-মিনারাতে শায়খ মাহমুদ মামদুহ (পৃষ্ঠা 351)

১৭.ফয়যুল কাদিরে- আল-মুনাভি।

১৮.ইবনে আবদুল আল-হাদী আল-সরিম আল-মুনকি (পৃষ্ঠা 206)

১৯.ইবনে তাইমিয়াহ: মাজমু‘আত আল-ফাতাওয়া, 27 / 241-242

২০.ইবনে তাইমিয়াহও এটিকে জিলা'আল ইফহামে সহীহ হিসাবে শ্রেণিবদ্ধ করেছেন;

২১.ইবনে কাইয়্যুমঃ আস সালাতু সালাম

২২.আহমদ আল-ঘুমারী আল-মুদাবী লি ‘ইলাল আল-মুনাভি, 6/277 এ ইবনে হাজারের গ্রেডিংয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন

২৩.আল্লামা সাখাবী (রহঃ) وسنده جيِّد -এর সনদ মজবুত লিখেছেন। (আল কওলুল বদী-১১৬)

২৪.ইবনে আসাকির