'এটি যেন আত্নিক রোগে পরিণত হয়েছে!' | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস



কোনো মুমিনের ইসলামের সৌন্দর্য এটা যে, সে অনর্থক কাজ পরিহার করে। আল্লাহ তায়ালাও মুমিনদের বৈশিষ্ট্য বর্ণনা করতে গিয়ে বলেন, 'আর যারা অনর্থক কথা-কর্ম পরিত্যাগ করে।' [১]

আমাদের প্রত্যেকটা কাজ, কথা শুরুর আগে ভাবা উচিত যে দুনিয়া বা আখিরাতে এর কোনো ফায়দা আছে কি না। আজকে যে বিষয়টি আমার আমার মাথায় ঘুরছে সেটা হলো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি শেয়ার।

আমাদের অধিকাংশের এটা আত্নিক রোগে পরিণত হয়েছে। সারাদিনে কয়েকটা ছবি নিজের টাইমলাইনে পোস্ট না করলে যেন ভাত হজম হয় না। হ্যা প্রয়োজনের কথা ভিন্ন। প্রোফাইল, কভার বা কোনো দর্শনীয় স্থানে ঘুরতে গিয়ে ছবি তুলে স্মৃতি হিসেবে অনেকেই ফেসবুক টাইমলাইনে রাখি। এটা ভিন্ন।

তবে আমি বলতে চাচ্ছি কিছু মানুষ আমরা এমন যে অপ্রয়োজনে সারাদিন নিজের ছবি পোস্ট করতে থাকি। বিনিয়মে কিছু লাইক, কমেন্ট। অবশ্য এটা ব্যক্তি স্বাধীনতা। তবে একজন মুমিনকে অবগত করাও জরুরি মনে করছি। প্রথমে উদ্দেশ্য নিশ্চিত করুন কেন আপনি ছবি আপলোড দিচ্ছেন। ভাবছেন মানুষ বসে থাকে আপনাকে দেখার জন্য? কি করছেন, কি খাচ্ছেন, কোথায় যাচ্ছেন এগুলো দেখার জন্য? নাকি কিছু লাইক, কমেন্ট?

উত্তর এগুলোর মধ্যেই কোনো একটা হবে। ভুল ভাবছেন। বরং মানুষ বিরক্ত হয়। তবে প্রিয় ভাই ছবি আপলোড এর ফলে আপনার কেনো ফায়দা হবে বা আপনার আমল নামায় একটিও সওয়াব লিখা হবে বলে মনে হয় না। তার মানে এটা সম্পূর্ণ অনর্থক একটা কাজ। আর অনর্থক কাজ পরিহার করাই মুমিনের ব্যক্তিত্ব।

রেফারেন্সঃ
[১] সূরা মু'মিনুন, আয়াত- ০৩।