পাগড়ী পরিধান করে নামাজ পড়ানো কি সুন্নাত? | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

  (ড.মুহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন) 

--------------------------------------------------

সওয়ালঃ-পাগড়ী পরিধান করে নামাজ পড়ানো কি সুন্নাত? পাগড়ীর আলাদা কোন ফজিলত আছে কি?

জওয়াবঃ-পাগড়ী পরে নামাজ পড়া বা পড়ানো রসুলে পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম, সাহাবা,তাবেয়ীন,তাবে তাবেয়ীন তথা সলফে সালেহীনের সুন্নাত। আল্লামা জালাল উদ্দীন সুয়ূতি (রহঃ) জামেউস ছগীরে (হাদীস নং -৪৪৬৮) বর্ননা করেছেন, পাগড়ী সহ দুরাকাত নামাজ পড়া পাগড়ী ছাড়া ৭০ রাকাতের চেয়ে উত্তম। 

পাগড়ী সহ নামাজ পড়া যে সুন্নাত তার পক্ষে অসংখ্য দলীল থাকার পরও আমাদের দেশের অসংখ্য খতীব মহোদয়কে পাগড়ী ছাড়া মাথায় লাল রুমাল ঝাপিয়ে নামাজ পড়াতে দেখা যায়। অথচ সর্বাবস্থায় একজন পুরুষ মাথায় রুমাল ঝাপিয়ে ঘোমটা দিয়ে রুমাল বা শালের দু'মাথা দুদিকে ঝুলিয়ে দেয়া মাকরুহে তাহরীমি। অবশ্যই চাদর বা শাল মাথায় দিয়ে দু'মাথা গলায় পেচিয়ে নিলে কোন অসুবিধা নাই। (দুর্রুল মোখতার)