"হাদিসটি সহিহ নয়" বলতে মুহাদ্দিসগণের দৃষ্টিতে কী বুঝায়? | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

`হাদিসটি সহিহ নয়` বলতে মুহাদ্দিসগণ এঁর দৃষ্টিতে কী বুঝায়?
🖋মাওলানা মুহাম্মদ শহিদুল্লাহ বাহাদুর

❏ প্রমাণ ১:

বিশ্ববিখ্যাত মুহাদ্দিস ইমাম হাফেয ইবনে হাজর আসকালানীর (رحمة الله) রচিত “আল ক্বওলুল মুসাদ্দাদ ফিয যুব্বি আন মুসনাদি আহমদ” নামক কিতাবে উল্লেখ করেছেন যে, 
وَلا يَلْزَمُ مِنْ كَوْنِ الْحَدِيثِ لَمْ يَصِحَّ أَنْ يَكُونَ مَوْضُوعًا -الحديث السابع
-‘‘হাদিসটি সহিহ নয় বললে, সেটা মাওদ্বু বা বানোয়াট হাদিস হওয়া অপরিহার্য নয়।’’
তথ্যসূত্রঃ 
● “আল ক্বওলুল মুসাদ্দাদ ফিয যুব্বি আন মুসনাদি আহমদ”, ১/ ৩৭ পৃষ্ঠা, মাকতাবায়ে ইবনে তাইমিয়া, মিশর।

❏ প্রমাণ ২:

বিশ্ববিখ্যাত মুহাদ্দিস হাফেয আল্লামা ইমাম আবদুর রহমান জালালুদ্দীন সূয়ূতী (رحمة الله) তাঁর লিখিত “তা‘কিবাত আলাল মওদ্বুআত’’ গ্রন্থে বলেন 
اكثر ما حكم الذهبى على هذا الحديث انه قال متن ليس بصحيح وهذا صادق بضعفه-التعقبات على الموضوعات باب: بدء الخلق والانبياء. 
-‘‘এ হাদিস সম্পর্কে ইমাম শামসুদ্দীন যাহাবী (رحمة الله) সর্বোপরি এ মন্তব্য করেছেন যে, হাদীসের বচনগুলো বা (মতন) সহিহ নয়। এ কথা দ্বারা বুঝা যায়, হাদিসটি দ্বঈফ বা দুর্বল পর্যায়ের (সূত্রের বা বচনের দিক দিয়ে)।’’ 
তথ্যসূত্রঃ 
● আল্লামা ইমাম জালালুদ্দীন সূয়ুতী (رحمة الله): তা‘কিবাত আলাল মওদ্বূআত, পৃ-২৪৫।

❏ প্রমাণ ৩:

বিশ্ববিখ্যাত মুহাদ্দিস আল্লামা মোল্লা আলী ক্বারী (رحمة الله) এ প্রসঙ্গে বলেন- 
– لَا يَلْزَمُ مِنْ عَدَمِ صِحَّتِهِ نَفْيُ وُجُودِ حُسْنِهِ وَضَعْفِهِ
-‘‘এতে কোন সন্দেহ করা অবকাশ নেই যে কোন মুহাদ্দিস ‘হাদিসটি সহিহ নয়’ বললে সেটার দ্বারা হাদিসটি বানোওয়াট হয়ে যাবে।’’ 
তথ্যসূত্রঃ 
● মোল্লা আলী ক্বারী (رحمة الله), আসরারুল মারফূআত,পৃ-১/১০৮পৃ., হাদিস ৮৫, মুয়াস্সাতুর রিসালা, বয়রুত, লেবানন।

❏ প্রমাণ ৪:

উক্ত কিতাবে মোল্লা আলী ক্বারী (رحمة الله) তিনি আশুরার দিন সুরমা লাগানোর বিষয়ে একটি বর্ণিত হাদিস সম্পর্কে হযরত ইমাম আহমদ ইবনে হাম্বল (رحمة الله) এর উক্তি لا يصح هذا الحديث (এ হাদিস সহিহ নয়) বলে মন্তব্য করার পর লিখেছেন-
لَا يَلْزَمُ مِنْ عَدَمِ صِحَّتِهِ ثُبُوتُ وَضْعِهِ وَغَايَتُهُ أَنَّهُ ضَعِيفٌ -
-‘‘আমার (মোল্লা আলী ক্বারী (رحمة الله)) কথা হল এ হাদিসটি ‘সহিহ নয়’ মানে বানোয়াট বা মাওদ্বু নয়। সর্বশেষ দ্বঈফ বলা যায় মাত্র।’’

❏ প্রমাণ ৫:

বিশ্ববিখ্যাত মুহাদ্দিস ইমাম হাফেয ইবনে হাজর আসকালানী (رحمة الله) বলেন,
ان لفظ لا يثبت لا يلزم منه ان يكون موضوعات فإن الثابت يشمل الصحيح فقط والضعيف دونه كذا فى تذكرة الموضوعات –المبحث: الثانى فى اقسام الواضعين.
-‘‘কোন হাদিসের ব্যাপারে মুহাদ্দিসদের বক্তব্য (এ হাদিসটি সুদৃঢ় নয়) বললে, হাদিসটি মাওদ্বু বা বানোওয়াট বলে প্রমাণিত হয় না। কারণ সাবিত বা প্রমাণিত শব্দ দ্বারা শুধু সহিহ হাদিসই বুঝায় এর নিম্ন পর্যায়ের হাদিসের মধ্যে দ্বঈফও রয়েছে।’’

❏ প্রমাণ ৬:

আল্লামা ইমাম ইবনে যওযী (رحمة الله) একটি হাদিস বর্ণনা করেন সনদে একজন রাবী দুর্বল থাকায় ইমাম যওজী (رحمة الله) তাঁর কিতাবুল ইল্লল-এ বলেন, قال ابن الجوزى فى العلل لا يصح ليس بجيد-
অর্থাৎ- উক্ত হাদিসটি পূর্ণ সহিহ পর্যায়ের নয়, বা সনদটি শক্তিশালী নয়। আল্লামা আযলূনী (رحمة الله) উক্ত হাদীসের রায়ের ইতি টেনে বলেন যে, وغايته أنه ضعيف لا موضوع
-‘‘পরিশেষে তার রায় দ্বারা এটাই বুঝা যায় যে, সনদে দুর্বলতা আছে কিন্তু তাই বলে জাল বা বানোয়াট নয়।’’ 

তথ্যসূত্রঃ 
● আল্লামা আযলূনী (رحمة الله) : কাশফুল খাফা : ২/১১০ : হাদিস ১৯৬৬।

❏ প্রমাণ ৭:

পরিশেষে প্রসিদ্ধ একটি হাদিস আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস রা. হতে বর্ণিত,
أَنَا مَدِينَةُ الْعِلْمِ وَعَلِيٌّ بَابُهَا-
-“আমি ইলমের শহর আর আলী রা. তার দরজা।
উক্ত হাদিসটি সম্পর্কে আল্লামা মোল্লা আলী ক্বারী (رحمة الله) বলেন,
وَسُئِلَ عَنْهُ الْحَافِظُ الْعَسْقَلَانِيُّ فَأَجَابَ بِأَنَّهُ حَسَنٌ لَا صَحِيحٌ كَمَا قَالَ الْحَاكِمُ وَلَا مَوْضُوعٌ-
-‘‘ইমাম ইবনে হাযার আসকালানী (رحمة الله) কে উক্ত হাদিস সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, উক্ত হাদিসটি সহিহ নয়, ‘হাসান’ পর্যায়ের হাদিস। ইমাম হাকিম (رحمة الله) বলেন, হাদিসটি জাল বা বানোওয়াট নয়।’’ তাই সুস্পষ্ট বুঝা যায় হাদিসটি সহিহ নয় বলতে “হাসান” হওয়াকে বুঝায়।

তথ্যসূত্রঃ
● মোল্লা আলী ক্বারী (رحمة الله): আসরারুল মারফূআহ : ১/১১৮ পৃ., হাদিস ৭১, মুয়াস্সাতুর রিসালা,বয়রুত।
● মোবারকপুরী (رحمة الله): তুহফাতুল আহওয়াজি : ১০/২২৬, হাদিস ৩৭২৩।
● আযলূনী (رحمة الله): কাশফুল খাফা : ১/১৮৪-৮৫; হাদিস ৬১৮।
● ইমাম সাখাভী (رحمة الله): মাকাসিদুল হাসানা : ১২১ পৃ., হাদিস ১৮৯।
● মোল্লা আলী ক্বারী (رحمة الله): মিরকাতুল মাফাতিহ : ১১/২৫৩, হাদিস ৬০৯৬।