"আমি তখনো নবী ছিলাম যখন আদম (আ) দেহ এবং আত্মার (রুহের) মধ্যবর্তী ছিলেন” — হাদিসটির পর্যালোচনা : | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

❑ "আমি তখনো নবী ছিলাম যখন আদম (আ) দেহ এবং আত্মার (রুহের) মধ্যবর্তী ছিলেন” — হাদিসটির পর্যালোচনা :

হাদিসটির সুত্র :  সামান্য ভিন্ন রকম বর্ননায় বিভিন্ন সূত্রে হাদিটি পাওয়া গেছে; কিন্তু মুল বিষয়বস্তু একই।

১. "আমি তখনও নবী ছিলাম"
২. "যখন আদম (আ) দেহ ও রুহের মধ্যবর্তী ছিল"
অথবা
৩. "যখন আদম (আ) দেহ ও মাটির মধ্যে মিশ্রিত ছিল"

এক নজরে হাদিসটি বিভিন্ন সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄▄
✪ ১ম সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
হযরত মাইসিরা আল ফজর ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) এর সুত্রে যারা যারা বর্ননা করেছেন :
১) ইমাম আহমদ ইবনে হাম্বল (রহ) : মুসনাদে আহমদ
২) ইমাম বুখারী (রহ) : আত তারিখুল কবীর
৩) ইমাম ত্বাবারানী (রহ)
৪) ইমাম হাকিম (রহ)
৫) ইমাম বায়হাকী (রহ)
৬) ইমাম আবু নু'আইম (রহ)
✪ ২য় সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
হযরত আল-ইরবাদ্ব ইবনে সারিয়া ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) ওনার সুত্রে বর্ননা করেছেন :
১) ইমাম আহমদ ইবনে হাম্বল (রহ)
২) ইমাম হাকিম (রহ)
৩) ইমাম বায়হাকী (রহ)
✪ ৩য় সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
হযরত আবু হুরায়রা ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) ওনার সুত্রে বর্ননা করেছেন :
১) ইমাম হাকিম (রহ)
২) ইমাম বায়হাকী (রহ)
৩) ইমাম আবু নু'আইম (রহ)
✪ ৪র্থ সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
হযরত ইবনে আব্বাস ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) ওনার সুত্রে বর্ননা করেছেন :
১) ইমাম বাযযার (রহ)
২) ইমাম তাবারানী (রহ) : আল-আওসাত
৩) ইমাম আবু নু'আইম (রহ) তিনি
↓ ↓
ইমাম শাবী (রহ) এর সনদে
↓ ↓
ইবনে আব্বাস (রা)
✪ ৫ম সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
হযরত ওমর ইবনে খাত্তাব ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) থেকে :
১) ইমাম আবু নু'আইম (রহ) : উক্ত হাদিসটি মুরসাল
২) ইমাম তাবারানী (রহ)
৩) ইবনে কাসীর (রহ)
৪) ইমাম জালালুদ্দিন সুয়ুতী (রহ)
✪ ৬ষ্ট সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
ইবনে আবুল জাদ'আ ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) থেকে :
১) ইমাম ইবনে সা'দ (রহ)
✪ ৭ম সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
হযরত মুত্বরিফ ইবনে আব্দুল্লাহ ইবনে আশ-শাখী ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) থেকে :
১) ইমাম ইবনে সা'দ (রহ)
✪ ৮ম সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
হযরত আমির ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) থেকে :
১) ইমাম ইবনে সা'দ (রহ)
দ্রাষ্টব্য : হাফিজুল হাদিস (১লক্ষ হাদিসের হাফিজ) ইমাম জালালুদ্দিন সুয়ুতী (রহ) এর বিখ্যাত কিতাব : খাসাইসুল কুবরা, খন্ড ১ম; পৃষ্টা ৩-৪। (প্রকাশনী : বইরুত, দারুল কিতাবিল আরাবী)
✪ ৯ম সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
হযরত জাবির ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) থেকে :
১) ইমাম ইবনে সা'দ (রহ)
✪ ১০ম সুত্র :
▄▄▄▄▄▄▄▄
হযরত আব্দুল্লাহ বিন সাকীক ( রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু) থেকে অনুরুপ বর্নিত ( আদম আ. যখন দেহ ও রুহের মধ্যবর্তী ছিল)

❖ উপরের হাদিসগুলোকে আরো শক্তিশালী করে এই হাদিসটি:
"আদম (আ) সৃষ্টিরও প্রায় ১৪ হাজার বছর পুর্বে প্রিয়নাবী রাসূলুন কারিম (صلى الله عليه و آله وسلم)  নুর হিসেবে বিদ্যমান ছিলেন ।"

✪ হাদিস ১:
▄▄▄▄▄▄▄▄
এ হাদিসটি হাযরাত আব্দুল্লাহ্ ইবনে আব্বাস রা., আব্দুল্লাহ্ ইবনে সাক্বিক্ব, উমার বিন খাত্তাব রাদ্বীয়াল্লহু তাআ'লা আনহুম থেকেও বর্ণিত আছে।

হাযরাত মাইসিরা আল ফাজর রা. থেকে বর্ণিত; তিনি প্রিয়নাবী রাসূলুন কারিম (صلى الله عليه و آله وسلم)  'কে জিজ্ঞেস করেছিলেন:
আপনি কখন থেকে নাবী? প্রিয়নাবী রাসূলুন কারিম (صلى الله عليه و آله وسلم)  ইরশাদ করেন: 'আদম যখন দেহ আর আত্মার মাঝে' আমি তখনো নাবী ছিলাম।
গ্রন্থ সূত্র:
*_* আলবানী; সিলসিলাতুল আহাদিস আস সাহিহাহ, খণ্ড ৪, পৃষ্ঠা ৪৭১, হাদিস ১৮৫৬, আল মারিফ লিন নাশর; রিয়াদ, সৌদিআরব।

✪ হাদিস ২:
▄▄▄▄▄▄▄▄
হাযরাত আবু হুরয়রা রা. থেকে বর্ণিত; সাহাবায়ে ক্বিরাম রা. প্রিয়নাবী রাসূলুন কারিম (صلى الله عليه و آله وسلم)  'কে জিজ্ঞেস করলেন, আপনি কখন থেকে নাবী?
প্রিয়নাবী রাসূলুন কারিম (صلى الله عليه و آله وسلم)  উত্তর দিয়েছিলেন, 'আদম আ. যখন দেহ আর আত্মার মধ্যবর্তী ছিলেন।
গ্রন্থ সূত্র :
১.
*_* সুনানে তিরমিযী; আল মানাকিব, পরিচ্ছেদ ফাজল আন নাবী (صلى الله عليه و آله وسلم) , খণ্ড ৫, পৃ., ৫৮৫, হাদিস ৩৬০৯;
২.
*_* আহমাদ ইবনু হাম্বাল রহ.; আল মুসনাদ, খণ্ড : ৪, ৫; পৃষ্ঠা ৬৬, ৫৯, হাদিস ২৩৬২০;
৩.
*_* হাকিম রহ.; আল মুস্তাদরাক, খণ্ড ২, পৃষ্ঠা ৬৬৫-৬৬৬, হাদিস ৪২০৯-৪২১০;
৪.
*_* ইবনু আবি শায়বাহ্ রহ.; আল মুসান্নাফ, খণ্ড :৭, পৃষ্ঠা ৩৬৯, হাদিস ৩৬৫৫৩।
৫.
তাবরানী রহ.; মা'জাম আল আওসাত, খণ্ড ৪, পৃষ্ঠা ২৭২, হাদিস ৪১৭৫।
৬.
তাবরানী রহ.; মা'জাম আল কাবীর, খণ্ড : ১২, পৃষ্ঠা ৯২, হাদিস ১২৫৭১।
৭.
আবু নাইম রহ.; হিলইয়াতুল আউলিয়া, খণ্ড ৭, ৯, পৃষ্ঠা ১২২, ৫৩।
৮.
বুখারী রহ.; তারিখ আল কাবীর, খণ্ড ৭, পৃষ্ঠা ৩৭৪, হাদিস ১৬০৬।
৯.
খালাল রহ.; আস সূন্নাহ্, খণ্ড ১, পৃষ্ঠা ১৮৮, হাদিস ২০০। সূত্রটি সহীহ্।
১০.
ইবনু আবি 'আসিম রহ.; আস সূন্নাহ্, খণ্ড ১, পৃষ্ঠা ১৭৯, হাদিস ৪১১। এর সূত্র সহীহ্।
১১.
শাইবানী রহ.; আহাদ ওয়াল মাসানী, খণ্ড ৫, পৃষ্ঠা ৩৪৭, হাদিস ২৯১৮।
১২.
আব্দুল্লাহ বিন আহমাদ বিন হাম্বাল রহ.; আস সূন্নাহ্, খণ্ড ২, পৃষ্ঠা ৩৯৮, হাদিস ৮৬৪। এর সূত্র সহীহ্।
১৩.
*_* ইবনু সা'দ রহ.; তাবাকাত আল কুবরা, খণ্ড ১, ৭; পৃষ্ঠা ১৪৮, ৬০।
১৪.
*_* ইবনু হিব্বান রহ.; সিক্বাত, খণ্ড ১, পৃষ্ঠা ৪৭।
১৫.
*_* ইবনু ক্বানী রহ.; মা'জাম আস সাহাবা, খণ্ড ২, ৩; পৃষ্ঠা ১২৭, ১২৯, হাদিস ৫৯১, ১১০৩।
১৬.
ইবনু খিয়াস রহ.; তাবাকাত, খণ্ড ১, পৃষ্ঠা ৫৯, ১২৫।
১৭.
*_* মুকাদ্দাসী রহ.; আহাদিস আল মুখতারাহ, খণ্ড, ৯, পৃষ্ঠা ১৪২, ১৪৩; হাদিস ১২৩-১২৪।
১৮.
*_* আবু আল মাহাসীন রহ.; মুতাসীর আল মুখতাসার, খণ্ড ১, পৃষ্ঠা ১০।
১৯.
*_* দায়লামী রহ.; মুসনাদ আল ফিরদউস, খণ্ড ৩, পৃষ্ঠা ২৮৪।
২০.
*_* ইবনে আসাকীর রহ.; তারিখে দামিষ্ক আল কাবীর, খণ্ড ২৬, ৪৫, পৃষ্ঠা ৩৮২, ৪৮৮-৪৮৯।
২১.
*_* লিয়ালকালাইয়ী রহ.; 'ইতিকাদ আহলুস সূন্নাহ্, খণ্ড ৪, পৃষ্ঠা ৭৫৩, হাদিস ১৪০৩।
২২.
*_* খতীব বাগদাদী রহ.; তারিখে বাগদাদ; খণ্ড ৩, পৃষ্ঠা ৭০, হাদিস ১০৩২।
২৩.
*_* আসকালানী রহ.; তাহজিব আত তাহজিব; খণ্ড ৫, পৃষ্ঠা ১৪৭, হাদিস ২৯০।
২৪.
*_* আসকালানী রহ.; আল আসাবাহ, খণ্ড ৬, পৃষ্ঠা ২৩৯।
২৫.
*_* আসকালানী রহ.; তা'জিল আল মুনফি'আহ, খণ্ড ১, পৃষ্ঠা ৫৪২, হাদিস ১৫১৮।
২৬.
*_* ইবনে 'আব্দুল বার রহ.; আল ইস্তিয়াব, খণ্ড ৪, পৃষ্ঠা ১৪৮৮, হাদিস ২৫৮২।
২৭.
*_* যাহাবী; সিয়ারু আল 'আলাম আন নূবালা; খণ্ড ৭, ১১, পৃষ্ঠা ৩৮৪, ১১০। এই হাদিসটির সূত্র সহীহ্।
২৮.
*_* জালাল উদ দ্বীন সুয়ূতি রহ.; খাসাইস আল কুবরা; খণ্ড ১, পৃষ্ঠা ১৮।
২৯.
*_* জালাল উদ দ্বীন সুয়ূতি; আল হাওয়ী লিল ফাতাওয়া; খণ্ড ২, পৃষ্ঠা ১০০।
৩০.
*_* ইবনু কাসীর; আল বিদায়া ওয়ান নিহায়া, খণ্ড ২, পৃষ্ঠা ৩০৭, ৩২০-৩২১।
৩১.
*_* জুরজানী রহ.; তারিখে জুরজান; খণ্ড : ১, পৃষ্ঠা ৩৯২, হাদিস ৬৫৩।
৩২.
*_* ক্কুস্তালানী রহ.; মাওয়াহিব আল লাদুন্নিয়া, খণ্ড : ১, পৃষ্ঠা ৬০।
৩৩.
*_* হাইসামী রহ.; মাজমাউজ জাওয়ায়িদ, খণ্ড : ৮, পৃষ্ঠা ১২২;
৩৪.
*_* আবু সা'দ আন নিশাবুরী রহ.; শারাফ আল মুস্তাফা; খণ্ড : ১, পৃষ্ঠা ২৮৬। হাদিস ৭৫।

✪ হাদিস ৩ :
▄▄▄▄▄▄▄▄
এই হাদিসটি অপর সুত্রে বর্নিত আছে :

عن العرباض بن سارية الفزاري قال : سمعت رسول الله صلى الله عليه و سلم يقول : ( إني عند الله مكتوب بخاتم النبيين وإن آدم لمنجدل في طينته (صحيح ابن حبان، كتاب التاريخ، باب من صفته صلى الله عليه و سلم وأخباره، رقم الحديث-৬৪০৪)
অনুবাদ : হযরত ইরবায বিন সারিয়্যা রাঃ থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন : আমি প্রিয়নাবী রাসূলুন কারিম (صلى الله عليه و آله وسلم)-কে বলতে শুনেছি যে, তিনি বলেছেন : নিশ্চয় আমি আল্লাহ তাআলার কাছে সর্বশেষ নবী হিসেবে লিপিবদ্ধ ছিলাম তখন, যখন আদম আঃ মাটিতে মিশ্রিত ছিলেন। অপর সহিহ বর্ননায় আছে, যখন আদম (আ) রুহ ও দেহের মধ্যে ছিলেন।
গ্রন্থ সূত্র :
*_* সহীহ ইবনে হিব্বান, হাদীস নং-৬৪০৪,
*_* মুসনাদে আহমাদ, হাদীস নং-১৭১৬৩,
*_* মুসনাদুল বাজ্জার, হাদীস নং-৪১৯৯,
*_* মুসনাদুশ শামীন, হাদীস নং-১৪৫৫,
*_* শুয়াবুল ঈমান, হাদীস নং-৩২২২,
*_* মিশকাতুল মাসাবিহ, হাদীস নং-৫৭৫৯,
*_* আল মু’জামুল কাবীর, হাদীস নং-৬৩১

✪ হাদিস ৪ :
▄▄▄▄▄▄▄▄
এই হাদিস অপর সুত্রে বর্নিত আছে :

عن عبد الله بن شقيق ؛ أن رجلا سأل النبي صلى الله عليه وسلم : متى كنت نبيا ؟ قال : كنت نبيا وآدم بين الروح والجسد (مصنف ابن ابى شيبة، كتاب المغازى، ما جاء في مبعث النبي صلى الله عليه وسلم، رقم الحديث-৩৭৭০৮)
অনুবাদ- আব্দুল্লাহ বিন শাকিক থেকে বর্ণিত। প্রিয়নাবী রাসূলুন কারিম (صلى الله عليه و آله وسلم) কে এক লোক প্রশ্ন করল-আপনি কখন থেকে নবী?
তিনি বললেন : আমি তখন থেকেই নবী যখন আদম আঃ রুহ ও শরীরের মাঝামাঝি ছিলেন।
গ্রন্থ সূত্র :-
*_* মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবা, হাদীস নং-৩৭৭০৮,
*_* মাশকিলুল আসার লিত তাহাবী, হাদীস নং-৫২২২,
*_* কানযুল উম্মাল ফি সুনানিল আকওয়াল ওয়াল
*_* আফআল, হাদীস নং-৩১৯১৭,
*_* জামেউল আহাদীস, হাদীস নং-১৫৮৩৫।
______
▆ হাদিস সম্পর্কে জরুরী জ্ঞাতব্য বিষয়ঃ

নোট ০১. দ্বয়ীফ হাদিসের উপর 'আমল করা মুস্তাহাব
https://mobile.facebook.com/hasan.mahmud/posts/1697298063918965
নোট ০২. জাল হাদিসের হুকুম
https://mobile.facebook.com/hasan.mahmud/posts/1697295443919227
নোট ০৩. ``হাদিসটি সহিহ্ নয়`` বলতে মুহাদ্দিসিনে ক্বিরাম কি বুঝিয়ে থাকেন!
https://mobile.facebook.com/hasan.mahmud/posts/1697290543919717
____