কোরআন শরীফ বলা কি বিদআত? | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

জিজ্ঞাসা–: আমার এক কলিগ বলছেন, কোরআন শরীফ বলা নাকি বিদাত। এটা কতটুকু সত্য?

জবাব: ‘শরীফ’ অর্থ ভদ্র, উচ্চ-মর্যাদাসম্পন্ন, সম্মানিত। (হাসানুল লুগাত পৃ.৫৬১, ফিরুযুল লুগাত পৃ.৬৩৬, রাবেয়া উর্দূ লুগাত পৃ.৭১১) সুতরাং ‘কোরআন শরীফ’ অর্থ উচ্চ-মর্যাদাসম্পন্ন, সম্মানিত কোরআন। আর কোরআন উচ্চ মর্যাদাসম্পন্ন –একথা কোরআনেই ইরশাদ হয়েছে। যেমন,

وَإِنَّهُ فِي أُمِّ الْكِتَابِ لَدَيْنَا لَعَلِيٌّ حَكِيمٌ

‘প্রকৃতপক্ষে এটা (কোরআন) আমার কাছে লওহে মাহফুজে উচ্চ মর্যাদাসম্পন্ন হিকমতপূর্ণ কিতাব।’
(সুরা যুখরুফ-৩)

بَلْ هُوَ قُرْآنٌ مَّجِيدٌ. فِي لَوْحٍ مَّحْفُوظٍ

‘বরং এটা অতি সম্মানিত কোরআন, যা লওহে মাহফুজে লিপিবদ্ধ।’
(সুরা বুরুজ-২১, ২২)

অতএব, আপনার কলিগ যে বলেছেন, কোরআনকে ‘কোরআন শরীফ’ বলা বিদআ’ত–তার একথা অসত্য। তিনি ‘শরীফ’ শব্দের আভিধানিক অর্থ না জানার কারণেই এমনটি বলেছেন।
মুফাসসিরগণ বলেছেন কুরআনের যতগুলো নাম আছে সেসকল নাম অনুযায়ী বলা যাবে।।

والله اعلم بالصواب