অযুর মধ্যে সন্দেহ আসার ৫টি বিধান | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

অযুর মধ্যে সন্দেহ আসার ৫টি বিধান

=============

❁ অযুকালীন সময়ে যদি কোন অঙ্গ ধৌত করা না করার ক্ষেত্রে সন্দেহ জাগে এবং এ সন্দেহ জীবনে প্রথম বারের মত ঘটে থাকে, তাহলে সে অঙ্গ ধুয়ে নিন। আর যদি এরূপ সন্দেহ প্রায়ই ঘটে থাকে, তাহলে তার প্রতি ভ্রুক্ষেপ করবেন না। অনুরূপ অযুর পরেও যদি কোন অঙ্গ ধৌত করা না করার ক্ষেত্রে সন্দেহ সৃষ্টি হয়, তার প্রতি কোন দৃষ্টি দিবেন না। (বাহারে শরীয়াত, ১ম খন্ড, ৩১০ পৃষ্ঠা) ❁আপনি অযু অবস্থায় ছিলেন, কিন্তু এখন আপনার অযু আছে কিনা, তাতে আপনার সন্দেহ সৃষ্টি হলো। এমতাবস্থায়ও আপনার অযু বহাল থাকবে নতুন ভাবে আপনাকে অযু করতে হবে না। কেননা, সন্দেহের কারণে অযু ভঙ্গ হয় না। (প্রাগুক্ত, ৩১১ পৃষ্ঠা) ❁ প্ররোচনার কারণে অযু ভেঙ্গে গেছে মনে করে পুনরায় অযু করা সাবধানতা অবলম্বন করা নয় বরং তা শয়তানেরই অনুকরণ মাত্র। (প্রাগুক্ত) ❁নিশ্চিতভাবে আপনি ততক্ষণ পর্যন্ত অযু অবস্থায় থাকবেন যতক্ষণ পর্যন্ত অযু ভঙ্গ হওয়ার উপর শপথ করে বলার মত আপনার প্রবল ধারণা না জন্মে।❁আপনার স্মরণ আছে যে, আপনার একটি অঙ্গ অধৌত রয়ে গেছে। তবে কোন অঙ্গটি অধৌত রয়ে গেছে তা আপনি নিশ্চিতভাবে বলতে পারছেন না, এমতাবস্থায় আপনি বাম পা ধুয়ে নিন। (দুররে মুখতার, ১ম খন্ড, ৩১০ পৃষ্ঠা)