রিযিকের পেরেশানি ও কোরআনী চিকিৎসা।

সায়্যিদুনা মাসঊদ রাদ্বিআল্লাহু আনহু খুব অসুস্থ। মৃত্যুশয্যায় শায়িত। সায়্যিদুনা ওসমান রাদ্বিআল্লাহু আনহু তাঁকে দেখতে গেলেন। তাঁকে বললেন— রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে আপনাকে যদি কিছু দেই তাহলে কেমন হয়?

তিনি উত্তর দিলেন- আমার প্রয়োজন নেই। ওসমান রাদ্বিআল্লাহু আনহু বললেন– পরবর্তীতে আপনার কন্যাদের কাজে আসবে। সায়্যিদুনা মাসঊদ রাদ্বিআল্লাহু আনহু উত্তর দিলেন– আপনি আমার কন্যাদের জন্য অভাব-অনটন এর চিন্তা করছেন? আমি তো তাদের কাছে রত্নভান্ডার রেখে যাচ্ছি। আমি তাদেরকে আদেশ দিয়েছি তারা যেন প্রতি রাতে সূরা ওয়াকিয়া তিলাওয়াত করে। আমার প্রিয় আক্বা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন— যে ব্যক্তি প্রতি রাতে সূরা ওয়াকিয়া পাঠ করে নিবে, সে অভাব-অনটনে পড়বে না। আল্লাহু আকবার।

চিকিৎসা ঘরে রেখে রোগ নিয়ে দৌড়াচ্ছি আমরা বিদেশে! আল্লাহর কোরআন আমাদের জন্য জাহেরী-বাতেনি শিফা। সকল সমস্যার সমাধান এতে রেখেছেন আল্লাহ তায়ালা। প্রিয় আক্বা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম শিখিয়ে দিচ্ছেন কোরআন থেকে সুবিধা গ্রহণ এর পদ্ধতি। রিযিকের চিন্তা, ঋণ এর পেরেশানিতে আমরা যারা দিনরাত হতাশ থাকি, আসুন আজ থেকেই রাসূলে আরাবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর ফরমান এর ওপর আমল শুরু করি।

আল্লাহ তায়ালা চাইলে আমাদের পেরেশানিগুলো অচিরেই দূর হয়ে যাবে। তিনি আমাদেরকে প্রাচুর্যতায় ভরপুর জীবন দান করবেন।

'রিযিকের পেরেশানি ও কোরআনী চিকিৎসা'
Previous Next

نموذج الاتصال