তোমাকে নিয়ে যত জল্পনা-কল্পনা! | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস



হে আমার প্রিয় রব! কতো প্রেমিককে দেখি তার প্রেমাষ্পদকে ঘিরে লিখে কতো কবিতা। লিখে কাব্য, লিখে কতো উপন্যাস। সুন্দর সুন্দর বাক্যচয়ন দ্বারা অলংকৃত করে তাদের মনের আর্জি।

আমি; হ্যা আমি তোমাকে ঘিরে কিছু লিখতে চাই। তুমিই যে সকল ভালোবাসার উৎস। তোমাকে দেখার প্রতিক্ষাই যে আমার বেঁচে থাকাকে উদ্দেশ্য প্রবণ করে। কিন্তু আমার কাছে সমৃদ্ধ শব্দ ভান্ডার নেই। যা দিয়ে তোমাকে ডাকব। তবে এই বিশ্বাসটুকু আছে— তুমি যে এত মহান! তুমি যে হৃদয়ের অপ্রকাশিত কথাগুলোও শুনো।

তোমাকে অসন্তুষ্ট করার চেষ্টায়ই যেন আমরা লিপ্ত। দিনশেষে হিসেব করলে দেখি, সারাদিন-রাত করা অধিকাংশ কাজগুলোই তোমাকে নারাজ করার জন্য যথেষ্ট। কিন্তু অবাক হই! তুমি তো চাইলে পারতে আমার খাবার বন্ধ করে দিতে। তুমি পারতে আমার নাফরমান চোখকে অন্ধ করে দিতে। কিন্তু তুমি তো এসবের কিছুই কর নি।

মনে পড়ে তুমি বলেছ— হে আমার বান্দা! তোমার রব তোমাকে আজাব দিয়ে কি করবেন? আমাকে আশাবাদী করে। তুমি আমাকে কতোটা ভালোবাস হে রব। তোমার ভালোবাসার কি সামান্য মূল্যও দিতে পেরেছি? এভাবেই যদি তোমার সামনে দাঁড়াতে হয়, তখন কি মুখ নিয়ে দাঁড়াব?

হে আমার রব! তুমি তো জানো, নফস আর শয়তানের কাছে আমি দূর্বল হয়ে যাই। তারা আমাকে তোমার থেকে দূরে সরিয়ে নিতে সারাক্ষণ চেষ্টায় লিপ্ত। কিন্তু বিশ্বাস কর আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি। সবকিছুর আগে আমার কাছে তুমি। আমাকে এখন শয়তান থেকে বাঁচতে শুধু তুমিই সাহায্য করতে পারো।

এত নাফরমানীর পরও তোমার করুণার দ্বার আমার জন্য বন্ধ হয়ে যায় না। তাই তোমার প্রতি আশাহতও হই না। যখন চারদিক হতাশায় ঘিরে যায়, তখন তুমি আমাকে আলোর পথ দেখাও। যখন আমাকে দরিদ্রতা আষ্টেপৃষ্টে ঘিরে রাখে, তুমি তখন আমাকে সাবলম্বী করে দাও। যখন আমি ভ্রষ্ট হয়ে যাই, তুমিই আমাকে হেদায়াতের পথ দেখাও। মানুষের সমালোচনার তীর যখন আমার হৃদয়কে ক্ষত-বিক্ষত করে, তখন এই ভেবে শান্ত হই যে— আমি কেমন তুমি তো জানো। আর এটাই আমার জন্য যথেষ্ট নয় কি? তারপরও কি তোমার শুকরিয়া আদায় করব না?

মনে অনেক কথা জমা আছে তোমার জন্য। প্রকাশ করতে অক্ষম। তবুও তুমি তো শুনে নিয়েছ সেটা ভেবে শান্তি পাচ্ছি। লাখো দূরুদ ও সালাম বর্ষণ করো তোমার প্রিয় হাবীব আমাদের আক্বা হুযুর সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর ওপর। যিনি আমাদেরকে সফলতার স্বপ্ন দেখিয়েছেন। কখনো তাঁর মোবারক নূরানী চেহারার দীদার দিয়ে আমাকে ধন্য করো— হে রব। তিনি যে আমাদের হৃদয়ের প্রশান্তি। তাঁর জন্য যে অধীর আগ্রহে অপেক্ষমান শত হৃদয়।

হে আমার রব! আমি তোমাকে ভালোবাসি। তুমিও আমাকে ভালোবাসো। আমাকে তোমার দ্বীনের ওপর অটল রাখো।

~স্বাধীন আহমেদ