একটি সতর্কবার্তা! | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

'টিক-টক', 'স্ন্যাক ভিডিও' যতদূর মনে হয়— সিমিলার দুটি এন্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন। কিছুদিন যাবৎ কাজিন, বন্ধুদের নিকট থেকে প্রচুর মেসেজ আসছে। মেসেজে রেফারেল কোড এবং লিংক।

দুটি অ্যাপ ডাউনলোড করলেই ইনকাম করা যাবে টাকা। আরেকজনকে রেফার করলে ইনকাম আরো বেশি। আচ্ছা! তাহলে আমি আপনার জন্য রিমাইন্ডার নিয়ে এসেছি। ভুলে যাওয়া বিষয়টি মনে করিয়ে দিতে এসেছি।

আপনি সামান্য টাকা আয়ের জন্য মানুষকে এমন কাজের দিকে ঠেলে দিচ্ছেন, যেখানে গেলে যুবক-যুবতীরা হারিয়ে যাবে গুণাহের সাগরের অতলে। আর আপনি নিত্যদিন ভিডিও দেখার মাধ্যমে তো পাপের বোঝা ভারী করছেনই। সাথে যাদেরকে ঠেলে দিলেন এই অশ্লীলতার দিকে, তাদের গুণাহের অংশীদারও হচ্ছেন। ভাবুন একবার— এই টাকা কি হালাল হতে পারে? যদি আজকে রাতে মারা যান? তওবার সময় কি পাবেন?

পারবেন তাদের ফোন থেকে গুণাহে ভরা অ্যাপ্লিকেশনটি ডিলিট করে দিতে? নাহ! বোধহয় এত সময় পাবেন না। অর্থাৎ মৃত্যুর পরও গুণাহ আপনার কবরে যাওয়া বন্ধ হবে না। মানুষ ভিডিও দেখবে, আর আপনার কবরে সেটা হতে অর্জিত পাপের একটা অংশ যাবে। পারবেন কবরের ভয়াবহতা সহ্য করতে? নাহ! আপনি অতটাও শক্তিশালী নন।

'আর যারা চায় মুমিনদের মধ্যে অশ্লীলতার প্রসার হোক তাদের জন্য রয়েছে যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি। আল্লাহ জানেন, তোমরা জানো না।' [সূরা নূর, আয়াত: ১৯]

এখনই সময়। ডিলিট করে দিন অ্যাপ্লিকেশনটি। আল্লাহ খুশি হয়ে গেলে এর চেয়ে উত্তম রিযিকের ব্যবস্থা হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ। যাদেরকে রেফার করেছিলেন তাদের কাছেও ডিলিট করে দেয়ার জোর আর্জি জানান। ক্ষমা চান আল্লাহর দরবারে। আল্লাহ অত্যন্ত দয়ালু এবং ক্ষমাশীল।

~স্বাধীন আহমেদ