মুখের হিফাজত! | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস


রাসূলে আরাবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর মোবারক ফরমান— কোনো বান্দা তার মুখ দিয়ে এমন কথা বের করে, যার ফলাফল সম্পর্কে সে অবগত নয়। আল্লাহ তায়ালা তাঁর জন্য নিজের সন্তুষ্টি লিখে দেন। আবার কোনো বান্দা তার মুখ দিয়ে এমন কথা বের করে, যার ফলাফল সম্পর্কে সেও অবগত নয়। আল্লাহ তার জন্য নিজের অসন্তুষ্টি লিখে দেন।

মুখ। মানবদেহের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর প্রত্যেক অঙ্গ-প্রতঙ্গ তাকে লক্ষ্য করে হিফাজতে থাকার আর্জি জানায়। কারণ মুখের লাগামহীন হয়ে যাওয়া মানে, বিপদ ডেকে আনা। আর মুখের ব্যবহার আল্লাহর জিকর, দুরুদে মোস্তফায় হওয়া মানে বিনা কষ্টে সাওয়াব কিনে নেওয়া।

অনেক সময় একটি শব্দ বলে বান্দা জান্নাত কিনে নেয়। আর অনেক সময় একটি শব্দ ব্যবহার করেই বান্দা, ঈমান থেকে ফারিগ হয়ে যেতে পারে। আজকে গান, কমিডি, টিকটিক, প্রাঙ্ক এর নামে নানারকম গুণাহে ভরপুর কাজে, না-জানে কেমন কেমন শব্দ ব্যবহার হচ্ছে, যার পরিণতি সম্পর্কে আমরা অবগত না। মজায়-মজায় গাইতে থাকেন, শুনতে থাকেন, বির-বির করতে থাকেন। আরেহ! এটা এমন কি?

ওয়াল্লাহি ভাই আমার, হতে পারে এমন শব্দও আপনি উচ্চারণ করছেন, যাতে আপনার ঈমানই চলে গেছে। আপনি আর মুসলমানই নেই। আর যার ঈমানই চলে যায়, তার কি-বা মূল্য আছে?

ইয়া মুকাল্লিবাল ক্বুলুবি সাব্বিত ক্বালবি আলা দ্বীনিক।

~স্বাধীন আহমেদ