শুধু আমল একজনকে নাজাত দিতে পারে না | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

অনেক আমল করেছেন? অন্যকে তুচ্ছ ভাবছেন? আপনার অন্তরের খবর আল্লাহ জানেন। কেমন হবে যখন কোন আমলই আপনাকে জান্নাতে নিয়ে যেতে পারবে না? বিনয়ী হোন, আহলে তাসাউফের অনুসরণ করুন। সারাদিন সহিহ হাদিস জপ জপেন? দুটি সহিহ হাদিস জেনে নিন।

আবূ হুরাইরাহ (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন,
بَاب الْقَصْدِ وَالْمُدَاوَمَةِ عَلَى الْعَمَلِ

آدَمُ حَدَّثَنَا ابْنُ أَبِي ذِئْبٍ عَنْ سَعِيدٍ الْمَقْبُرِيِّ عَنْ أَبِي هُرَيْرَةَ قَالَ قَالَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم صلى الله عليه وسلم لَنْ يُنَجِّيَ أَحَدًا مِنْكُمْ عَمَلُهُ قَالُوا وَلاَ أَنْتَ يَا رَسُولَ اللهِ صلى الله عليه وسلم قَالَ وَلاَ أَنَا إِلاَّ أَنْ يَتَغَمَّدَنِي اللهُ بِرَحْمَةٍ سَدِّدُوا وَقَارِبُوا وَاغْدُوا وَرُوحُوا وَشَيْءٌ مِنْ الدُّلْجَةِ وَالْقَصْدَ الْقَصْدُ تَبْلُغُوا.

রাসূলুল্লাহ্ (ﷺ) বলেছেনঃ কস্মিনকালেও তোমাদের কাউকে তার নিজের ‘আমল কখনো নাজাত দিতে পারবে না। তাঁরা বললেন, হে আল্লাহর রাসূল! আপনাকেও না? তিনি বললেনঃ আমাকেও না। তবে আল্লাহ্ পাক আমাকে তাঁর স্বীয় রহমত দিয়ে আবৃত করে রেখেছেন। তোমরা যথারীতি ‘আমল করে নৈকট্য লাভ কর। তোমরা সকালে, বিকালে এবং রাতের শেষভাগে আল্লাহর ইবাদাত কর। মধ্য পন্থা অবলম্বন কর। মধ্য পন্থা তোমাদেরকে লক্ষ্যে পৌঁছাবে। [1]

হাদিসের মানঃ সহিহ (Sahih)

*মুসলিম ৫০/১৭, হাঃ ২৮১৬,
*সহীহ বুখারী, আধুনিক প্রকাশনী- ৬০১৩,
*সহীহ বুখারী, ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৬০১৯
*সহীহ বুখারী, হাদিস ৬৪৬৩, তাওহীদ পাবলিকেশন
*অধ্যায়ঃ ৮১ - সদয় হওয়া (كتاب الرقاق)
*পরিচ্ছেদঃ ৮১/১৮. ‘আমলে মাঝারি পন্থা গ্রহণ এবং নিয়মিত কাজ সম্পাদন।

[1] হাদীসটি প্রমাণ করে যে, আল্লাহর রহমত ব্যতীত শুধু আমলের দ্বারা কেউ জান্নাতে প্রবেশ করতে পারবে না। (ইমাম ইবনে হাজার আসকালানীঃ ফাতহুল বারী শরহে বুখারী)

হজরত আবদুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, যার অন্তরে সরিষার দানা (সামান্যতম) পরিমাণও অহংকার আছে, সে (প্রথম পর্যায়ে) জান্নাতে প্রবেশ করবে না এবং যার অন্তরে সরিষার দানা (সামান্যতম) পরিমাণ ঈমান আছে সে জাহান্নামে (স্থায়ীভাবে) প্রবেশ করবে না। (ইবনে মাজাহ, হাদিস : ৫৯)