নামাজের পর সম্মিলিত মুনাজাত কি বিদআত? | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

নামাজের পর সম্মিলিত মুনাজাত কি বিদআত?

আসুন দেখি হাদিস শরীফ কোথাও রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সম্মিলিত মুনাজাত করেছেন কিনা। অনাবৃষ্টির কারণে ততকালীন আরবের সমস্যা হলে এক বেদুঈন দরবারে মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামে উপস্থিত হলেন। হজরত আনাস ইবনে মালিক রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন,

أَتَى رَجُلٌ أَعْرَابِيٌّ مِنْ أَهْلِ البَدْوِ إِلَى رَسُولِ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ يَوْمَ الجُمُعَةِ، فَقَالَ: يَا رَسُولَ اللَّهِ، هَلَكَتِ المَاشِيَةُ، هَلَكَ العِيَالُ هَلَكَ النَّاسُ، «فَرَفَعَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ يَدَيْهِ، يَدْعُو، وَرَفَعَ النَّاسُ أَيْدِيَهُمْ مَعَهُ يَدْعُونَ»

এক জুম'আর দিনে জনৈক বেদুঈন রাসূলে পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নিকট উপস্থিত হয়ে বলল, হে আল্লাহ্‌র রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম! (বৃষ্টির অভাবে) গৃহপালিত পশুগুলো মারা যাচ্ছে। মানুষ খতম হয়ে যাচ্ছে। তখন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম দোয়া'র জন্য হাত উঠালেন। আর সমবেত লোকেরাও রাসূলে পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সাথে হাত উঠালেন।( সহিহ বুখারী, হাদীস নং-১০২৯)
বর্ণনাকারী হজরত আনাস ইবনে মালিক বলেন, আমরা মসজিদ থেকে বের হওয়ার পূর্বেই বৃষ্টি আরম্ভ হয়ে গেল। (সুবহানাল্লাহ) ( বাবে ইস্তিস্কা)

এ হাদীসে আলোকে স্পষ্টভাবে বলতে পারি রাসূলে পাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকেও সম্মিলিত মুনাজাত করা প্রমানিত।

আর এ হাদিসের আলোকে এটাও প্রমাণিত যে সম্মিলিত মুনাজাত করা বিদায়াত নয়!

হোক সেটা ফরজ কিংবা নফল সালাতের পরে। সম্মিলিত মুনাজাত করাটা সম্পুর্ন নিষেধ এমন কোন হাদিস যদি দেখাতে না পারে তো বেহতর চুপ থাকা। আশাকরি বিষয়টি নিয়ে ফিতনা না বাড়িয়ে যে যার মত করে আল্লাহপাকের সন্তুষ্টি অর্জন করার তাওফিক দিন।