রাসূল(ﷺ)এর প্রতি ভালোবাসার ফল। | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

*রাসূল(ﷺ)এর প্রতি ভালোবাসা *
 
হযরত সালমান ফার্সি রদিআল্লাহু আনহুর নবী প্রেম ।
হযরত সালমান ফারসি রাহঃ আখেরে নবী শাফিয়াল মোজনবীন রহমাতুল্লিল আলামীন এর আগমনের সংবাদ শুনে এতো যে পাগল পারা হয়েছেন যা নজির বিহীন । একের পর এক খৃস্টানের গির্জায় গিয়ে    জাজকের সেবা করেছেন আখেরি নবীর দঃ ঠিকানা পাওয়ার আশায় 
     কৃতদাস  হয়ে সুধুর ইরান হয়ে রাষ্ট্রের পর রাষ্ট্র ভ্রমণ করেছেন তিনি ।
  হযরত সালমান ফার্সি রদিআল্লাহু আনহু কেন এতো পাগল পারা হয়েছেন নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর জন্য? কারন একটাই- আল্লাহ্ এরশাদ করেছেন قل ان كنتم تحبون الله فاتبحعوني يحببكم الله ويغفرلكم ذنوبكم- অর্থাৎ হে নবী , আপনি লোকদেরকে বলে দিন, যদি সত্যি তোমরা আল্লাহ্ কে ভালোবাসতে চাও তবে আমার অনুসরণ কর। আল্লাহ্ তোমাদেরকে ভালোবাসবেন এবং তোমাদের পাপ ক্ষমা করে দেবেন।
  কেননা,  من يطع الرسول فقد اطا ع الله -অর্থাৎ  যেই ব্যক্তি রাসূলের (দঃ) অনুসরণ করবে সে মূলত আল্লাহরই অনুসরণ করে ।

   হযরত সালমান ফার্সি রদিআল্লাহু আনহু রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর প্রতি এতো মোহাব্বত ভালোবাসা করার কারনে কি পেয়েছেন জানেন ?  সবছে বড় নেয়ামত পেয়েছেন  -  রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ঘোষণা দিয়েছেন , সালমান আমার আহলে বায়তের সদস্য, সোবহানাল্লাহ্।  কত বড় নেয়ামত কল্পনা করতে পারেন?
  এই ঘোষণার মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হলো নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর প্রতি ভালোবাসা হযরত সালমান ফার্সি রদিআল্লাহু আনহুকে কত উচ্চ মকাম নবীর আহলে বায়তের সদস্য পদ লাভ হল ।
   আর নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর অনুসরণ করার কারনে আল্লার পক্ষ থেকে- রাদিআল্লাহু আনহু ওয়ারাদু আনহুমা, মর্যাদা লাভ করলেন ।  আল্লাহ্ তাঁর উপর সন্তুষ্টি অর্জন করেছেন । আল্লাহর বন্ধু হিসেবে গন্য হয়েছেন । সমস্ত পাপ পূর্ণে পরিনত হয়েছে ।
  ভালো যদি বাসতে চাও নবীকে বাসুন । সৃষ্টি জগত তোমাকে ভালো বাসবে তোমার গোলামী করবে ।