ক্ষমা | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

ক্ষমা
-------------
-মূলঃ শায়খ মুহাম্মাদ আসলাম
-অনুবাদঃ সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া আজহারি

আপনি কী জানেন? উতবা হুজুর রাসুলুল্লাহﷺর কন্যা সায়্যিদাহ রুকাইয়াহ রাঃ কে বিয়ে করে এবং হিংসাবশতঃ উনাকে তালাক দেয়। সে অনেক দিন পর হুজুর রাসুলুল্লাহ ﷺর কাছে আসে। চিন্তা করুন তো কী হতে পারে? প্রিয়নবী ﷺ তাকে ক্ষমা করে দিলেন।

আবু জাহলের ছেলে দুই দশক নবি কারিম ﷺর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে। সে অনেক বছর পর রাসুলুল্লাহ ﷺর কাছে আসল এবং চিন্তা করুন তো কী হতে পারে? প্রিয়নবী ﷺ লোকজনকে বলে দিলেন তার সামনে তার বাবা সম্পর্কে কথা না বলতে। তাকে ক্ষমা করে দিলেন এবং তিনি ইসলাম গ্রহণ করলেন।

হাব্বার নামক এক ব্যক্তির কারনে হুজুর রাসুলুল্লাহ ﷺর কন্যা সায়্যিদাহ যায়নাব রাঃ হিজরত করতে পারেন নি। উটের উপর থেকে পড়ে গিয়ে গর্ভপাতের শিকার হন তিনি। অনেক বছর পর হাব্বার হুজুর রাসুলুল্লাহ ﷺর কাছে আসল। চিন্তা করুন তো কী হতে পারে? প্রিয়নবী ﷺ তাকে ক্ষমা করে দিলেন এবং তিনি ইসলাম গ্রহণ করলেন।

ওয়াহশি হুজুর রাসুলুল্লাহ ﷺর চাচা হজরত আমির হামজা রাঃ কে শহিদ করল। অনেক বছর পর ওয়াহশি হুজুর রাসুলুল্লাহ ﷺর কাছে আসল। চিন্তা করুন তো কী হতে পারে? প্রিয়নবী ﷺ তাকে ক্ষমা করে দিলেন এবং তিনি ইসলাম গ্রহণ করলেন।

হজরত ওসমান ইবনে তালহা রাঃ প্রিয়নবি ﷺকে ইসলাম গ্রহনের আগে মক্কা শরিফে প্রবেশ করতে বাধা দিয়েছিলেন। আর হুজুর রাসুলুল্লাহ ﷺ যখন মক্কা শরিফ বিজয় করলেন তখন সেই ওসমান ইবনে তালহা রাঃ এবং তার পরিবারের হাতেই কাবা শরিফের চাবি দিয়ে গেলেন যা কাল কেয়ামত পর্যন্ত তার পরিবারের হাতেই থাকবে।

ফাদালা হুজুর রাসুলুল্লাহ ﷺকে কাবা শরিফ তাওয়াফ রত অবস্থায় শহিদ করার জন্য আসল এবং চিন্তা করুন তো কী হতে পারে? প্রিয়নবী ﷺ উনার পবিত্র হাত মোবারক তার বুকের উপরে বুলিয়ে দিলেন, তাকে ক্ষমা করে দিলেন এবং তিনি ইসলাম গ্রহণ করলেন।

আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তায়ালা বলেন, "নিশ্চয়ই আল্লাহর রাসুলের মাঝেই আছে তোমাদের জন্য উত্তম চারিত্রিক নমুনা"।- আল কুরআন

মানুষের পাপগুলো বড় ছিল কিন্তু হুজুর রাসুলুল্লাহ ﷺর করুণা  তার চেয়েও বড় ছিল।

হে উম্মতে মুহাম্মাদি ﷺ! মানুষকে ক্ষমা করে দাও। তুমি কী চাও না যে আল্লাহ পাক তোমাকে ক্ষমা করে দিন?