শয়তানের থুথু | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

আল্লাহতালা যখন হজরতে আদম আলাইহিসালাম এর দেহ মুবারক তৈরি করলেন তখন ফেরেশতা গন এটা দেখতে লাগলেন।। কিন্ত অভিশপ্ত শয়তান হিংসার আগুনে জ্বলতে লাগলো এবং বিদ্বেষের বশবর্তী হয়ে হজরত আদম আলাইহিসালাম এর দেহ মুবারক এর উপর থুথু নিক্ষপ করলো।। এ থুতু গিয়ে হজরত আদম আলাইহিসালাম এর নাভিস্থলে পড়লো।। আল্লাহতালা জিবরাইল আলাইহিসালাম কে নির্দেশ দিলেন ঐ জায়গা থেকে থুতু মিশ্রিত মাটিগুলি বের করে ফেলো। এবং সেই মাটি দিয়ে কুকুর বানিয়ে দাও।।নির্দেশ মুতাবেক শয়তানের থুতু মিশ্রিত সেই মাটি দ্বারা কুকুর সৃষ্টি হলো।।কুকুর মানুষের ভক্ত এ জন্য যে এর শরীরে আদম আলাইহিসালাম এর মাটি রয়েছে।।নাপাক এ জন্য যে সেই মাটি শয়তানের থুতু মিশ্রিত এবং রাত্রি জাগরনের কারন হলো সেই মাটিতে জিব্রাইল আলাইহিসালাম এর হাত লেগেছে।।

[[সূত্রঃ--
১)তাফসীরে রুহুল বয়ান ১ম খন্ড পৃস্টা নং-৬০০
২)ইসলামের বাস্তব কাহীনি ১ম খন্ড পৃস্টা নং-৫১]]

#আমাদের_শিক্ষণীয়তাঃ---শয়তানের থুতু দ্বারা আদম আলাইহিসালাম এর কোন ক্ষতি হয়নি।।বরং নাভিস্থল ও পেটের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পেয়েছে।।এই রকম আল্লাহতালার নেক বান্দ (আউলিয়ায়ে ও আম্বিয়ায়ে কেরাম) গনের বারগাহে বে-আদবী করার দ্বারা ওনাদের কোনো ক্ষতি হয় না। বরং উনাদের শান আরও উদ্ভাসিত হয়।। আউলিয়া কেরাম দের ঘৃণা ও অবজ্ঞার চোখে দেখাটা হচ্ছে শয়তানি কাজ।।আজকের কিছু তথাকথিত ইসলামিক দল(জামাত)যারা আউলিয়া দের ঘৃণা ও অবজ্ঞা সূচক উক্তি করে তারা নিঃসন্দেহ তে এই দুনিয়ার শয়তান দ্বারা প্রভাবিত।।আল্লাহতালা তাদের বোঝার ও হেদায়েত দান করুন।।আমিন ইয়া রাব্বাল আলামীন।