ইয়াকীনের প্রকারভেদ | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

ইয়াকীন কয়েক প্রকার:
✍ কৃতঃ আল্লামা আজিজুল হক আল কাদেরী (رحمة الله) মুনিয়াতুল মুছলেমীন [১ম খন্ড]

❏ মাসয়ালা: (২৯৬) 
ইয়াকীন কয়েক প্রকার:
১. একটি হল ‘করারী’ যা মুর্তিপূজক কাফির ও জ্বিনদের অর্জিত। 
২. ইকরারী যা মুসলমাদের অর্জিত। 
৩. ইয়াকীন ই’তেবারী যা সত্য লোকের শিক্ষা দ্বারা অর্জিত হয়, এ ধরণের বিশ্বাস পাহাড় সমতুল্য। 
৪. ইয়াকীন ফকীরের সিফাত। যা দ্বারা অক্ষমদের সহযোগতিা করা হয়। তাই যার ভেতরে ইয়াকীন স্থান পাবে তার থেকে নাস্তিকতা দূরে চলে যাবে।  
➥ [আকলে বেদার:১২]

❏ মাসয়ালা: (২৯৭)
গাইব জানা আল্লাহর গুণ। মহান আল্লাহ নিজ বিশেষ বান্দাহদের নিজ স্পেশাল জ্ঞান দান করেন। যেমন ইলমে লুদুনী। কারো কারো আল্লাহর নৈকট্য দ্বারা ইলহাম অর্জিত হয়। এই রাস্তা রাসূল (ﷺ) এর প্রদর্শিত। যে তা অস্বীকার করবে সে বাতিল। তার অন্তর মৃত।  
➥ [আকলে বেদার:১১]

❏ মাসয়ালা: (২৯৮)
কামেল মুর্শেদের নিদর্শন হল সে কারো নিকট মুখাপেক্ষী হবে না এবং নিজে কাশফ কারামাতের কারণে অহঙ্কারী হবে না।  
➥ [আকলে বেদার:১০]