ইমাম আযম কোন কোন হাদিসকে যাচাই বাচাইয়ের পর নির্বাচন করেছেন? | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস


✍ কৃতঃ আল্লামা আজিজুল হক আল কাদেরী (رحمة الله) মুনিয়াতুল মুছলেমীন [১ম খন্ড]

❏ মাসয়ালা: (৩৪৬)
ইমাম আযম কোন কোন হাদিসকে যাচাই বাচাইয়ের পর নির্বাচন করেছেন?  
হযরত মাখদুম শায়খ আহমদ খামাশখানবী (رحمة الله) জামেউল উসূল কিতাবে লিখেন, ইমাম আযম নিজ ছেলে হাম্মাদকে  নসীহত করে বলেন, হে প্রিয় বৎস! আমি পাঁচ লাখ হাদিস থেকে যাচাই বাচাই করে পাঁচটি হাদিস নির্বাচন করেছি যদি তুমি সেই পাঁচ হাদিস মুখস্থ করে তা মতে আমল কর  উভয় জাহানের কল্যাণ লাভ করবে।

 সে পাঁচ হাদিস হল: 

১. إِنَّمَا الْأَعْمَالُ بِالنِّيَّاتِ 
সকল কাজ নিয়তের উপর নির্ভর। 

২. لاَ يُؤْمِنُ أَحَدُكُمْ حَتَّى يُحِبَّ لأَخِيهِ مَا يُحِبُّ لِنَفْسِهِ. 
অর্থ তোমাদের মধ্যে থেকে কেউ ততক্ষণ পর্যন্ত মু’মিন হতে পারবে না, যতক্ষণ পর্যন্ত সে নিজের জন্য যা পছন্দ করে তা তার ভাইয়ের জন্য পছন্দ করবে না। 

৩. وَالْمُسْلِمُ مَنْ سَلِمَ الْمُسْلِمُونَ مِنْ لِسَانِهِ وَيَدِهِ،  
মুসলমান হল, যার হাত পা দ্বারা অপরজন নিরাপদ থাকে। 

৪. إِنَّ مِنْ حُسْنِ إِسْلَامِ الْمَرْءِ تَرْكُهُ مَا لَا يَعْنِيهِ 
মানুষের ইসলামের সৌন্দর্য হল সে সকল অহেতুক কাজ বর্জন করবে। 

 إِنَّ الْحَلاَلَ بَيِّنٌ ، وَالْحَرَامَ بَيِّنٌ ، وَبَيْنَهُمَا مُشْتَبِهَاتٌ لاَ يَعْلَمُهَا كَثِيرٌ.৫ مِنَ النَّاسِ ، فَمَنِ اتَّقَى الشُّبُهَاتِ اسْتَبْرَأَ فِيهِ لِدِينِهِ وَعِرْضِهِ ، 
হালাল প্রকাশিত ও হারাম প্রকাশিত মাঝখানে সন্দেহযুক্ত বস্তু রয়েছে যা মানুষ জানে না; তাই যে ব্যক্তি সকল সন্দেহযুক্ত বস্তু থেকে বিরত থাকবে সে নিজের দ্বীন ও সম্মান হেফাযতে রাখবে।  
➥ [নওয়াদেরুল হাদিস, পৃ:৩১]

❏ মাসয়ালা: (৩৪৭)
➠ইমাম আযম (رحمة الله) বলেন, যে কোন বিশুদ্ধ মত আমার মাযহাব। অর্থাৎ, যদি কোন বিশুদ্ধ মাযহাব পাওয়া যায় তা আমার মাযহাব। এর বিপরীতে আমার কথাকে দেওয়ালে মার। তার কি অর্থ? 
তার মর্মার্থ হল, যদি কারো আমার কোন কথার ব্যাপারে সন্দেহ আসে এবং এর বিপরীতে কোন বিশুদ্ধ হাদিস তার নিকট থাকে তখন সে হাদিস মতে আমল করবে।  
➥ [তানবীরুল কুলুব:৩১৬]