পৃথিবীতে সর্বপ্রথম চিরস্থায়ী বর্ষপঞ্জিকা তৈরি করে ছিলেন যে মুসলিম বিজ্ঞানী | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

পৃথিবীতে সর্বপ্রথম চিরস্থায়ী বর্ষপঞ্জিকা তৈরি করে ছিলেন যে মুসলিম বিজ্ঞানী । 




১০৭৩ সালে ওমর খৈয়ামকে সেলজুক সাম্রাজ্যের সুলতান মালিক শাহ সেলজুকের রাজধানী ইস্ফাহানে আমন্ত্রণ জানান একটি অপরিবর্তনীয় এবং চিরস্থায়ী বর্ষপঞ্জিকা তৈরি করে দিতে। 
উল্লেখ্য, তখনকার সময়ে পঞ্জিকাগুলো স্থায়ী ছিল না এবং ঘন ঘন বছরের দৈর্ঘ্য পরিবর্তন করা হতো। সুলতানের ডাকে সাড়া দিয়ে আরো কয়েকজন বিজ্ঞানীকে সাথে নিয়ে ১০৭৪ সালে সেলজুক গমন করেন ওমর খৈয়াম। সুলতান মালিক শাহ ওমরকে ভালো সব রকম সুযোগ-সুবিধার নিশ্চয়তা দিলেন। 

প্রথমেই ওমর, সুলতানকে দিয়ে একটি অবজারভেটরি (মানমন্দির) তৈরি করিয়ে নিলেন যেখান থেকে অন্তত ৩০ বছর আকাশ পর্যবেক্ষণ করা হবে। ৩০ বছরের লক্ষ্য এজন্য ঠিক করা হয়েছিল যে এ সময়ে শনি গ্রহ তার কক্ষপথে একবার ঘূর্ণন শেষ করবে। 

পর্যবেক্ষণে খৈয়াম ১০২৯.৯৮ দিনে ২.৮২ বছর হিসাব করলেন। সে হিসাবে এক বছরের দৈর্ঘ্য দাঁড়ায় ৩৬৫.২৪২২ দিন। বর্তমানে আধুনিক জ্যোতির্বিজ্ঞান বছরের দৈর্ঘ্য পরিমাপ করেছে ৩৬৫.২৪২১৮৯ দিন বা ৩৬৫.২৪২২ দিন! 
ঠিক ওমর খৈয়াম যা বহু বছর আগে হিসাব করেছিলেন, তা-ই।
 ওমর তার বর্ষপঞ্জির কাজ শেষ করেছিলেন ১০৭৮ সালে। পরের বছর থেকেই সুলতান মালিক শাহ নতুন বর্ষপঞ্জি হিসেবে ওমরের বর্ষপঞ্জি চালু করেন যা ২০ শতক পর্যন্ত প্রচলিত ছিল।

IGSRC