উসমানী সাম্রাজ্যের ইতিহাস বিষয়ক সিরিয়ালগুলো হতে কিছু শিক্ষণীয় বিষয় | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

উসমানী সাম্রাজ্যের ইতিহাস বিষয়ক সিরিয়ালগুলো হতে কিছু শিক্ষণীয় বিষয়
🖋মুহাম্মদ রাশেদ
-----

দিরিলিস আরতুগ্রুল, কুরুলুস উসমান, পায়িতাথ আবদুল হামিদ, কুতুল আমের, 
ইউনুস এমরে, ফিলিন্টা মুস্তাফা ইত্যাদি 
অত্যন্ত জনপ্রিয় ও আলোচিত তুর্কী সিরিয়াল।

এসব সিরিয়াল, উসমানী সাম্রাজ্যের প্রায় ৭০০ বছরের রোমাঞ্চকর সত্য ইতিহাসকে উপজীব্য করে নির্মিত হয়েছে। কাহিনীর প্রয়োজনে হয়তো সামান্য কিছু সংযোজন ও বিয়োজন করা হয়েছে। তবে মূল ও সত্যের রাজপথ হতে সিরিয়ালগুলো মোটেই বিচ্যুত বা অতিরঞ্জিত করা হয়নি।

উসমানী সাম্রাজ্যের এসব সিরিয়াল হতে আমরা প্রকৃত ইসলাম ও মুসলিম এর পরিচয় লাভ করতে পারি। সেসব গৌরবময় ও আত্মা-প্রশান্তিকর ইতিহাস আমাদের ঈমান ও আমলকে মজবুত করতে দারুণ সাহায্য করতেছে।

এসব সিরিয়াল হতে প্রাপ্ত শিক্ষা আমরা আমাদের জীবনে ও কর্মে তুলে আনতে বা ধারণ করতে পারি। নয়তো তা নিছক বিনোদন ও সময় ব্যয় ছাড়া আর কোনো উপকারে আসবে না।

এসব সিরিয়াল প্রেমিক ভাইদের জন্য আমি এসব সিরিয়াল হতে অতীব গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয় কিছু শিক্ষা তুলে ধরলাম। ভুলত্রুটি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

১. রাষ্ট্রীয়, সামাজিক, পারিবারিক ও ব্যক্তিগত জীবনের যে কোনো অবস্থা বা পরিস্থিতিতে একমাত্র সর্বশক্তিমান আল্লাহ পাকের উপর পরিপূর্ণ তাওয়াক্কুল রাখতে হবে। বিশুদ্ধ আস্থা ও বিশ্বাস রাখতে হবে। সাহায্য চাইতে হবে ও সাহায্যের আশায় ধৈর্য্য ধরতে হবে।

২. নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া আলিহী ওয়া আসহাবিহী ওয়া বারিক ওয়া সাল্লাম এর প্রতি অত্যন্ত প্রগাঢ় ও বিশুদ্ধ ভালোবাসা থাকতে হবে। আদব ও তাজীম থাকতে হবে। নবীজীর সুন্নাতের মুহাব্বতপূর্ণ সাধ্যমতো অনুসরণ করতে হবে। নবীজী'র উসিলা নিয়ে আল্লাহ পাকের সুমহান দরবারে ফরিয়াদ পেশ করতে হবে।

৩. জীবনের সবকিছুর চাইতে আল্লাহ পাক ও রাসূলে পাক দঃ এর ইচ্ছা ও সন্তুষ্টিকে প্রাধান্য দিতে হবে। তাঁদের প্রতি আনুগত্য, দায়বদ্ধতা, ভালোবাসা, আদব, মুহাব্বতকে প্রাধান্য দিতে হবে।

৪. আল্লাহ পাকের মুকাররব ও নেককার বান্দাগণ তথা ওলী-আউলিয়াদের সম্মান ও আদব করতে হবে। ভালোবাসতে হবে। মান্য করতে হবে। উনাদের নিকট দোয়ার আরজি করতে হবে। উনাদের দোয়া আল্লাহ পাকের সুমহান দরবারে কবুল হয়। আল্লাহ পাকের হুকুম ও দয়ায় উনারা অনেক কিছু জানেন ও দেখেন, যা আমাদের মতো সাধারণরা দেখি না ও জানি না। আল্লাহ পাকের হুকুমে ও প্রদত্ত ক্ষমতায় উনারা আল্লাহ পাকের বান্দাদের বিপদ আপদে সাহায্য করেন।

৫. ইসলাম, মুসলমান, মাযহাব ও মিল্লাতের খেদমতে প্রচুর সংগ্রাম ও কষ্ট সহ্য করতে হয়। ত্যাগ স্বীকার করতে হয়।

৬. যে কোনো অবস্থা ও পরিস্থিতিতে সত্যের পক্ষে, ন্যায়ের পক্ষে থাকতে হবে। প্রচুর ধৈর্য্য ও তওয়াক্কুল থাকতে হবে। কঠোর পরিশ্রমী হতে হবে। হালাল উপার্জন করতে হবে। মানবিক হতে হবে।

৭. দেশপ্রেমিক হতে হবে। স্বজাতি প্রেমিক হতে হবে। কৌশলী হতে হবে। একতাবদ্ধ থাকতে হবে।

৮. ইসলামে সবসময় মুনাফিক ও চক্রান্তকারী থাকে। ইহুদি, খ্রিষ্টান, কাফের, মুশরিক তথা বিধর্মীরা মুসলিম সেজে ইসলামে অনুপ্রবেশ করে। মুসলিমে মুসলিমে তথা ভাইয়ে ভাইয়ে ফাটল ও দূরত্ব সৃষ্টি করে। কূটকৌশল ও গুপ্তহত্যা করে।

৯. সকল কাফেররা ভাই ভাই। একই রসুনের আলাদা কোষ বা অংশ। ইসলাম ও মুসলিমের বিরুদ্ধে তারা তলে তলে এক।

১০. আল্লাহ পাকের উপর ভরসা ও বিশ্বাস রেখে  কাজ করলে যে কোনো কাজে সফল হওয়া যায়। যে কোনো চক্রান্তকে নস্যাৎ করা যায় ও যে কোনো শত্রুকে পরাজিত করা যায়।

আজ আপাতত এতটুকুই। কোনো ভুল থাকলে পরামর্শ দিবেন। আল্লাহ পাক আমাদের সবাইকে ছিরাতুল মুস্তাকিমে জীবন অতিবাহিত করার তৌফিক দিক, আমীন।