কোন অমুসলিম এর কালেমা শাহাদাত পাঠের আগে কিছু করণীয় আছে কি? | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

জিজ্ঞাসা–৯১২: কোন অমুসলিম এর কালেমা শাহাদাত পাঠের আগে কিছু করণীয় আছে কি?–মো: মেহেদি হাসান।

জবাব:

একপ্রিয় প্রশ্নকারী ভাই, ইসলাম ধর্মের একটি চমৎকার বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, এ ধর্ম গ্রহণ করা একেবারে সহজ। এ ধর্ম গ্রহণ করার জন্য কোনো ধর্মগুরুর কাছেও যেতে হয় না। একজন মানুষ এটা নিজে নিজেই করতে পারে; এমনকি সে যদি একেবারে একাকী থাকে কিংবা মরুভূমিতে থাকে কিংবা বনে-জঙ্গলে থাকে কিংবা কোনো বদ্ধ কামরায় থাকে সেখানেও সে নিজে নিজে ইসলাম গ্রহণ করতে পারে।

এর প্রক্রিয়াটা হচ্ছে এই যে, সুন্দর দুটি বাক্য উচ্চারণ করা; যাকে পরিভাষায় ‘শাহাদাহ’ বলা হয়। অর্থাৎ, ইসলাম গ্রহণের নিয়তে শুধু কালেমা তাইয়েবা বা কালেমা শাহাদাত উচ্চারণ করলে সে মুসলিম হয়ে যাবে।

দুই. কালেমা তাইয়েবা এই–

لآ اِلَهَ اِلّا اللّهُ مُحَمَّدٌ رَسُوُل اللّهِ (লা-ইলা-হা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ।)

কালেমা তাইয়েবার অর্থ এই– আল্লাহ ছাড়া কোন উপাস্য নাই, মুহাম্মাদ ﷺ তাঁর প্রেরিত রাসুল।

কালেমা শাহাদাত এই–

أَشْهَدُ اَنْ لّآ اِلهَ اِلَّا اللّهُ وَحْدَه لَا شَرِيْكَ لَه، وَ اَشْهَدُ اَنَّ مُحَمَّدً اعَبْدُه وَرَسُولُه

(আশ্‌হাদু আল-লা-ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াহ্‌দাহু-লা-শারীকালাহু ওয়া আশ্‌হাদু আন্না মুহাম্মাদান আ’বদুহু ওয়া রাসূলুল্লাহ।)

কালেমা শাহাদাতের অর্থ এই– আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি, আল্লাহ ব্যতীত আর কোনো উপাস্য নেই।  আমি আরও সাক্ষ্য দিচ্ছি,  মুহাম্মদ ﷺ আল্লাহর বান্দা ও তাঁর প্রেরিত রাসুল।

তিনকালেমা পাঠের পূর্বে কিছু করার নেই। তবে ইয়ামামাহর নেতা ছুমামাহ্ ইবনু আছাল কালেমা পাঠের আগে গোসল করেছিলেন (বুখারী ৪৬২)। এজন্য ইসলাম গ্রহণের আগে গোসল করাকে মুস্তাহাব বলা হয়েছে।

সুতরাং যিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করতে চান, তিনি প্রথমে সুযোগ থাকলে গোসল করে নিবেন। গোসল না করলেও অসুবিধা নেই। তারপর মুসলিম হওয়ার নিয়তে কালেমা পাঠ করে নিবেন। এতেই তিনি মুসলিম হয়ে যাবেন।

আল্লাহ যারা হেদায়েতের পথ গ্রহণ করেছে তাদের ওপর শান্তি বর্ষণ করুন। আমীন।

والله اعلم بالصواب
উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী