মুসলিম বিজ্ঞানী আল বাত্তানি (রহ.) এর অবদানে সৌর বছর নির্ণয় | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস



মুসলমানদের সংস্পর্শে না আসলে তথাকথিত পশ্চিমা বিজ্ঞানীরা জানতো না ১ সৌর বছরের দৈর্ঘ ৩৬৫দিন ।
মুসলিম বিজ্ঞানী আল বাত্তানি (৮৫৮ – ৯২৯) উনার বিখ্যাত কি তাব ‘‘আল জিজে’’তে মোট ৫৭টি অধ্যায় আছে। এই বইয়ে তিনি আকাশে তারকাদের এক বিশাল তালিকা তৈরি করেন এবং ৪৮৯টি তারকার নামকরণ করেন। 
তিনি  সর্বপ্রথম হিসেব করে সৌরবছরের দৈর্ঘ্য নির্ণয় করেন ৩৬৫ দিন ৫ ঘন্টা ৪৮ মিনিট ২৪ সেকেন্ড। সেখানে আধুনিক প্রযুক্তির বদৌলতে আজ আমরা জানি সৌরবছরের দৈর্ঘ্য ৩৬৫ দিন ৫ ঘন্টা ৪৮ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড। আল বাত্তানির হিসাবে মাত্র ২১ সেকেন্ডের তফাৎ! বিস্ময়কর নয় কি? কোনোরকম উন্নত টেলিস্কোপ কিংবা আধুনিক মহাকাশ বিজ্ঞান সম্বন্ধীয় যন্ত্রপাতি ছাড়াই উনার এই পরিমাপ সত্যিই বিস্ময়কর।

 বইয়ের মাঝপথে এসে আল বাত্তানি গতি নিয়ে আলোচনায় চলে যান। আল বাত্তানি সূর্য, চাঁদ, পৃথিবী এবং তখনকার সময়ে পরিচিত অন্য পাঁচটি গ্রহের (বুধ, শুক্র, মঙ্গল, শনি ও বৃহস্পতি) গতি নিয়ে আলোচনা করেন। তিনি মহাকাশ বিজ্ঞানের অনেক জটিল বিষয়েও আলোচনা করেছেন। বইয়ের শেষদিকে আলোচনা করেছেন মহাকাশ বিজ্ঞানের প্রয়োজনীয় বিভিন্ন যন্ত্রপাতি তৈরির পদ্ধতি নিয়ে, যার মধ্যে রয়েছে একটি সূর্যঘড়িও। তিনি প্রমাণ করেন যে সূর্য তার নিজস্ব কক্ষে গতিশীল।

মধ্যযুগের একজন বিখ্যাত প্রকাশক ইবনে আন নাদিম আল বাত্তানির কিতাব আল জিজ সম্পর্কে বলেন, “নক্ষত্র এবং তারকারাজি সম্পর্কে এরকম নিখুঁত পর্যবেক্ষণ সমৃদ্ধ বই আগে আরবের কেউ লেখেনি। 

IGSRC