দলিলসহ নামাজের মাসায়েল : (পর্ব ১৪)রুকু পেলে রাকাত পাওয়া হয় মর্মে আরব বিশ্বের আলেম-উলামার ফতোয়া : | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

রুকু পেলে রাকাত পাওয়া হয় মর্মে আরব বিশ্বের আলেম-উলামার ফতোয়া :
শায়খ আব্দুল আযীয ইবনে বায বলেছেন:
والصواب الذي عليه جمهور أهل العلم أنه متى أدرك الركوع فقد أدرك الركعة , وتسقط عنه قراءة الفاتحة على القول بوجوبها على المأموم لحديث أبي بكرة الثققي الثابت في صحيح البخاري
অর্থাৎ সংখ্যাগরিষ্ঠ আলেমের মতই সঠিক যে, মুক্তাদি রুকু পেলেই রাকাতটি পেয়ে যাবে, এবং তার থেকে ফাতেহা পাঠ রহিত হয়ে যাবে। এটা তাদের মতের ভিত্তিতে যারা মুক্তাদির উপর ফাতেহা পাঠ আবশ্যক মনে করেন। রুকু পেলে রাকাত পাওয়া হয় এ মতটির দলিল হলো আবু বাকরা রা.এর হাদীস, যেটি বুখারী রহ. তাঁর সহীহতে উদ্ধৃত করেছেন। (মাজমু’ ফাতাওয়া ইবনে বায)
শায়খ উছায়মীন তার ফতোয়া তো ফাতাওয়া আরকানুল ইসলাম-এ বিধৃত হয়েছে। এর বাংলা অনুবাদও হয়েছে। দেখুন ফাতওয়া নম্বর ২৩৬। সেখানেও তিনি উপরের মতটিই সমর্থন করেছেন।
শায়খ সালিহ ইবনে ফাওযান:
আরবের আরেকজন প্রসিদ্ধ আলেম শায়খ সালিহ ইবনে ফাওযান। তিনি বলেছেন:
من جاء والإمام في الركوع ، فإنه يكبر تكبيرة الإحرام وهو واقف، ثم يركع مع الإمام ، ويكون مدركًا للركعة ولا تلزمه قراءة الفاتحة في هذه الحالة ؛
অর্থাৎ যে ব্যক্তি এমন সময় আসল যখন ইমাম রুকুতে, সে ব্যক্তি দাঁড়িয়ে তাকবীর বলবে এবং ইমামের সঙ্গে রুকুতে শরিক হবে। এতে করে সে ঐ রাকাতটি পেয়ে যাবে। এমতাবস্থায় তাকে আর ফাতেহা পড়তে হবে না। কেননা ফাতেহা পড়ার স্থান তার ছুটে গেছে। (মাজমুউ ফাতাওয়া সালিহ ইবনে ফাওযান)
ফাতাওয়া আল-লাজনাতুদ দাইমা
সৌদি আবরের সর্বোচ্চ পর্যায়ের আলেম ও মুফতীগণের একটি স্থায়ী বোর্ড আছে। এর নাম ‘আল-লাজনাতুদ দাইমা’। এ বোর্ডের ফাতওয়া হলো:
إذا كبر المأموم تكبيرة الإحرام قائما ثم ركع وأدرك الإمام في الركوع أجزأته تلك الركعة، لحديث أبي بكرة... ... ولما رواه أبو داود عنه صلى الله عليه وسلم: من أدرك الركوع فقد أدرك الركعة
الرئيس : إبراهيم بن محمد آل الشيخ
نائب الرئيس : عبد الرزاق عفيفي
عضو : عبد الله بن غديان
عضو : عبد الله بن منيع
অর্থাৎ মুক্তাদি যদি দাঁড়িয়ে তাকবীরে তাহরীমা বলে এরপর রুকু করে এবং ইমাম রুকু অবস্থায় পায় তবে তার ঐ রাকাতটি হয়ে যাবে। এর দলিল আবু বাকরা রা. বর্ণিত হাদীস... ... ও আবু দাউদ শরীফে উদ্ধৃত রাসূল সা. এর বাণী: যে ব্যক্তি রুকু পেল সে রাকাতটি পেয়ে গেল।
ইবরাহীম ইবনে মুহাম্মদ আলে শায়খ ,প্রধান
আব্দুর রাযযাক আফীফী, সহকারী প্রধান
আব্দুল্লাহ ইবনে গাদায়ান, সদস্য
আব্দুল্লাহ ইবনে মানী’, সদস্য
(দ্র. ফতওয়া নং ৯৩)
আলবানী সাহেবও স্পষ্ট বলেছেন, রুকু পেলেই রাকআত পাওয়া হবে। দেখুন, ইরওয়াউল গালীল, হাদীস ৪৯৬; আসসিলসিলাতুস সহীহা, হাদীস ২২৯।