দলিলসহ নামাজের মাসায়েল : (পর্ব ২৩)মুকতাদীর আস্তে আমীন বলার দলিল | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

মুকতাদীর আস্তে আমীন বলার দলিল

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইমাম ছিলেন। তালিম দেওয়ার উদ্দেশ্যে হলেও মাঝে মধ্যে জোরে আমীন বলার প্রমাণ তাঁর থেকে পাওয়া যায়। কিন্তু এমন কোন সহীহ হাদীস পাওয়া যায় না যেখানে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মুকতাদীকে জোরে আমীন বলতে বলেছেন, কিংবা তাঁর পেছনে সাহাবীগণ জোরে আমীন বলেছেন। এই কারণে ইমাম আবূ হানীফা র., ইমাম মালেক র. ও সুফিয়ান ছাওরী র. প্রমুখ বলেছেন, মুকতাদীরা আস্তে আমীন বলবে। ইমাম শাফেয়ী র. এ সম্পর্কে কোন সহীহ হাদীস না পাওয়ার কারণে তাঁর পূবের্র মত পাল্টিয়ে বলেছেন, মুকতাদী আমীন আস্তে বলবে। পেছনে আমাদের পেশকৃত দলিলগুলি দ্বারা প্রমাণিত হয়ে গেছে যে, ইমাম আমীন আস্তে বলবে। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামও সাধারণ ভাবে আমীন আস্তেই বলতেন। ঐ দলিলগুলি থেকেই প্রমাণিত হয় যে, মুকতাদীরাও আমীন আস্তে বলবে। সাহাবীগণের আমল ও ফতোয়াও ছিল তদ্রুপ।

হযরত আবু হুরায়রা রা. বলেছেন:

كَانَ رَسُولُ اللَّهِ -صلى الله عليه وسلم- يُعَلِّمُنَا يَقُولُ لاَ تُبَادِرُوا الإِمَامَ إِذَا كَبَّرَ فَكَبِّرُوا وَإِذَا قَالَ وَلاَ الضَّالِّينَ . فَقُولُوا آمِينَ. وَإِذَا رَكَعَ فَارْكَعُوا وَإِذَا قَالَ سَمِعَ اللَّهُ لِمَنْ حَمِدَهُ. فَقُولُوا اللَّهُمَّ رَبَّنَا لَكَ الْحَمْدُ. اخرجه مسلم فى الصحيح )৪১৫(

অর্থ: রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাদেরকে শেখাতেন। তিনি বলতেন, ইমামের পূর্বে কিছু করো না। যখন ইমাম তাকবীর বলবে, তখন তোমরাও তাকবীর বলবে। ইমাম যখন وَلاَ الضَّالِّينَ পড়ে শেষ করবে তখন তোমরা আমীন বলবে। ইমাম যখন রুকু করবে তোমরাও তখন রুকু করবে। আর যখন سمع الله لمن حمدهবলবে, তোমরা তখন বলবে اللَّهُمَّ رَبَّنَا لَكَ الْحَمْدُ । মুসলিম শরীফ, হাদীস নং ৪১৫।

এ হাদীসে তিনটি নির্দেশ এসেছে, তোমরা তাকবীর বলবে, তোমরা আমীন বলবে, তোমরা রাব্বানা লাকাল হামদ বলবে। প্রথম ও তৃতীয়টি সকলের মতে নিঃশব্দে পড়তে হবে। হাদীসটির বর্ণনাধারা থেকে প্রতীয়মান হয় যে, দ্বিতীয় নির্দেশটিও নিঃশব্দে পালন করবে।