১৩ তম হাদিসঃ পবিত্রতা,তাসবিহ,সালাত,ধৈর্য ও কোরআনের ফযীলত | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

عَنْ    أَبِي    مَالِكٍ   الْأَشْعَرِيِّ   قَالَ:   قَالَ    رَسُولُ   اللَّهِ    ﷺ الطَّهُورُ         شَطْرُ         الْإِيمَانِ،         وَالْحَمْدُ           لِلَّهِ         تَمْلَأُ  الْمِيزَانَ،وَسُبْحَانَ  اللَّهِ  وَالْحَمْدُ لِلَّهِ تَمْلَآنِ  -أَوْ: تَمْلَأُ-  مَا بَيْنَالسَّمَاءِ        وَالْأَرْضِ،      وَالصَّلَاةُ      نُورٌ،       وَالصَّدَقَةُ بُرْهَانٌ،وَالصَّبْرُ  ضِيَاءٌ،  وَالْقُرْآنُ  حُجَّةٌ لَك  أَوْ عَلَيْك،  كُلُّ النَّاسِيَغْدُو،   فَبَائِعٌ  نَفْسَهُ  فَمُعْتِقُهَا  أَوْ مُوبِقُهَا.  (رَوَاهُ مُسْلِمٌ)

উচ্চারণ:  ‘আন আবি মালিকিল আশআরি   ক্বালা: ক্বালা  রাসূলুল্লাহি   ﷺ  আত্ব  তুহুরু     সাতরুল  ঈমান।  ওয়াল  হামদু    লিল্লাহু     তামলাউল    মিযান।    ওয়াসুবহানাল্লাহি  ওয়াল    হামদু    লিল্লাহি    তামলানি      আও    তামলাউ-মা  বাইনাস    সামায়ি  ওয়াল   আরদ্বি,   ওয়াসসালাতু  নূরুন, ওয়াসসাদাক্বাতু বুরহানুন, ওয়াসসাবরু দ্বিয়াউন। ওয়াল কুরআনু   হুজ্জাতুন  লাকা  আও    আলাইকা।  কুল্লু    নাসি  ইয়াগদু,      ফাবাই-উ      নাফসাহু,      ফামু’তিক্বুহা         আও  মুবিক্বুহা। (রাওয়াহু মুসলিম)

অনুবাদ:  আবূ  মালিক  আল  আশ'আরী  (রাযিঃ)  থেকে  বর্ণিত।   তিনি   বলেন,   রাসূলুল্লাহ   সাল্লাল্লাহু    আলাইহি  ওয়াসাল্লাম  বলেছেনঃ  পবিত্রতা    হল  ঈমানের     অংশ। “আলহামদু   লিল্লা-হ”     মিযানের   পরিমাপকে     পরিপূর্ণ করে  দিবে  এবং  "সুবহানাল্লা-হ  ওয়াল    হামদুলিল্লা-হ" আসমান   ও  জমিনের  মধ্যবর্তী   স্থানকে   পরিপূর্ণ  করে  দিবে।       “সালাত”       হচ্ছে      একটি      উজ্জ্বল       জ্যোতি। “সদাকাহ” হচ্ছে দলীল। “ধৈর্য” হচ্ছে জ্যোতির্ময়। আর "আল   কুর’আন'    হবে   তোমার    পক্ষে    অথবা   বিপক্ষে প্রমাণ  স্বরূপ।  বস্তুতঃ    সকল   মানুষই   প্রত্যেক    ভোরে নিজেকে আমলের  বিনিময়ে বিক্রি করে।  তার   আমাল  দ্বারা  সে   নিজেকে  (আল্লাহর  আযাব থেকে)  মুক্ত  করে অথবা সে তার নিজের ধ্বংস সাধন করে।

[সহীহ  মুসলিম,   তাহারাত    অধ্যায়,   অনুচ্ছেদঃ   অজুর ফযিলত      হাঃ      ২২৩;    সুনানে     নাসাঈ     হাঃ    ৩৯৪০; বায়হাকী   সুনানে    কুবরা   ৭/৭৮;   মুস্তাগরেক    হাকেমঃ ২/১৬০;    মুসনাদে   আহমদ    বিন   হাম্বল   ৩/১৯৯    হাঃ  ১৩০৮৮]