১০ম হাদিসঃ নবীজীর রাত্রিকালীন কঠোর ইবাদত | ইসলামী বিশ্বকোষ ও আল-হাদিস

عَنْ عَائِشَةَ رَضِيَ اللَّهُ عَنْهَا: أَنَّ  نَبِيَّ اللَّهِ ﷺ كَانَ يَقُومُ مِنَ   اللَّيْلِ    حَتَّى   تَتَفَطَّرَ   قَدَمَاهُ،   فَقَالَتْ   عَائِشَةُ:   لِمَ  تَصْنَعُ هَذَا يَا رَسُولَ  اللَّهِ، وَقَدْ غَفَرَ اللَّهُ لَكَ مَا تَقَدَّمَ مِنْ ذَنْبِكَ    وَمَا   تَأَخَّرَ؟    قَالَ:  «أَفَلاَ  أُحِبُّ  أَنْ    أَكُونَ  عَبْدًا شَكُورًا

উচ্চারণ:  ‘আন ’আয়িশাতা রাদিয়াল্লাহা  ‘আনহা:   আন্না  নাবিয়াল্লাহি   ﷺ   কানা   ইয়াকুমু   মিনাল   লাইলি   হাত্তা  তাতাফাত্তারা   ক্বাদামাহু    ফাক্বালাত     ‘আয়িশাতা   লিমা তাসনাউ হাযা ইয়া  রাসূলুল্লাহি, ওয়া    কাদ গাফারাল্লাহু লাকা মিন যাম্বিকা ওয়ামা তাআক্ষারা? ক্বালা:  আফালা উহিব্বু ‘আন আকুনা আবদান শাকুরান।

অনুবাদ: হযরত আয়েশা সিদ্দীকা (রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা) থেকে  বর্ণিত।  তিনি  বলেন  নবীজী   ﷺ রাতে  ইবাদতের  জন্য  এমনভাবে   দন্ডায়মান  থাকতেন  যে,  নবীজীর   পা   মোবারক    ফুলে   যেত।   হযরত   আয়েশা  সিদ্দীকা (রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা) আরজ করলেন, হে     আল্লাহর    রাসুল!   কেন   আপনি   এমনটা   করছেন, যেখানে আল্লাহ পাক আপনার পূর্বাপর সকল ক্রুটি ক্ষমা করে দিয়েছেন। নবীজী এরশাদ করলেন, আমিকি এটা পছন্দ   করবনা   যে,     আমি    শুকরগুজার   বান্দাহ   হই? (সহীহ বুখারী, ও সহীহ মুসলিম)

[সহীহ বুখারী, অধ্যায়    তাফসির ৪/১৮৩০ হা:  ১৮৩০ হা: ৪৫৫৭;  সহীহ   মুসলিম, অধ্যায় কিয়ামত,   জান্নাত ও   জাহান্নামের   বৈশিষ্ট   4/২১৭২;   সুনানে   তিরমিজি,  অধ্যায়: সালাত ২/২৬৮ হা: ৪১২]